মানিকছড়িতে পাষণ্ড পিতা কর্তৃক কন্যা শিশুকে ধর্ষণ মামলায় আটক

fec-image

মানিকছড়িতে এক পাষণ্ড পিতা কর্তৃক নিজ শিশু কন্যা সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী (১২) কে শ্লীলতাহানির অভিযোগ উঠেছে। নির্যাতিতার মা পারভীন আক্তার বাদী হয়ে মামলা দায়ের করায় পুলিশ অভিযুক্তকে আটক করেছে।

অভিযোগ পর্যালোচনা ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার গচ্ছাবিলস্থ চৌধুরী পাড়ার মো. দুলাল মিয়া (৫০) পিতা মৃত. ফজল হকের দ্বিতীয় স্ত্রী পারভীন আক্তার ৩ সন্তানের জননী। তার বড় মেয়ে (১২) গচ্ছাবিল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণিতে অধ্যয়নরত। স্বামী মো. দুলাল মিয়ার সাথে স্ত্রী পারভীন আক্তারের সংসারে অশান্তি বিরাজ করছিল। ফলে পারভীন আকতারের স্বামী গত ২১,২৮ জুলাই ও ১০, ১৪ আগস্ট তারিখে অভিযুক্ত মো. দুলাল মিয়া নিজ কন্যার অসন্মতিতে জোরপূর্বক ৪ বার ধর্ষণ করে! বিষয়টি শিশু কন্যা তার মা পারভীন আক্তারকে খুলে বললে ১৬ আগস্ট সকালে নির্যাতিতার মা বিষয়টি প্রথমে ইউপি সদস্য মো. মোশারফ হোসেন ও সাবেক চেয়ারম্যান মো. আবুল কালামকে অবহিত করেন।

পরে ওই জনপ্রতিনিধিরা অভিযুক্তকে ডেকে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করলে সে অস্বীকার করেন। পরে বিষয়টি থানা পুলিশকে অবহিত করে এবং ঘটনার নির্মমতা উল্লেখ করে নির্যাতিতার মা ও অভিযুক্তের ২য় স্ত্রী পারভীন আক্তার (৩৫) বাদী হয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। পরে পুলিশ রাতেই অভিযুক্ত মো. দুলাল মিয়া (৫০)কে আটক করেন। এ বিষয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন আইন ২০০৩ এর ধারা ৯(১)/১০ মূলে মামলা রেকর্ড করা হয়। মানলা নং ৪, তারিখ ১৭.৮.২০২১ খ্রি.।

থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ শাহনূর আলম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, অভিযুক্তকে আটক করে মঙ্গলবার আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

20 + 2 =

আরও পড়ুন