মানিকছড়িতে ভূয়া ব্যাংক হিসাবে এফডিআর দেখিয়ে টাকা আত্মসাৎ

fec-image

মানিকছড়ি উপজেলার গাড়ীটানা নেছারিয়া ইসলামিয়া দাখিল মাদরাসার সুপার মাহমুদুল হাসানের অভিনব প্রতারণা সরকারি ব্যাংক পর্যন্ত গড়িয়েছে। প্রতিষ্ঠানের নামে ভূয়া এফডিআর দেখিয়ে আত্মসাৎ করেছে ৫০,০০০ টাকা। তিনি নিজ প্রতিষ্ঠানের ১৬ জন নিয়মিত শিক্ষার্থীকে ভূয়া রেজিষ্ট্রেশন ও এডমিট কার্ড দেখিয়ে অটোপাসের গান শুনিয়ে পরীক্ষা থেকে বঞ্চিত করে অর্থকরি নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার ঘটনায় এলাকায় তোলপাড় চলছে।

এ নিয়ে গতকাল সংবাদ প্রকাশের পর সুপারের প্রাতিষ্ঠানিক নানা কর্মকান্ড খতিয়ে দেখছে মাদরাসা কমিটি। এতে বেড়িয়ে আসছে সরকারি ব্যাংকের সীল, স্বাক্ষর জালিয়াতি করে ভূয়া হিসাব নাম্বারে এফডিআরের ৫০,০০০( পঞ্চাশ) হাজার টাকার স্থিতি বিবরণী সনদ দেখিয়ে তা আত্মসাৎ করার চাঞ্চল্যকর তথ্য।

রোববার (২১ নভেম্বর) সকালে গাড়ীটানা নেছারিয়া ইসলামিয়া দাখিল মাদরাসা পরিচালনা কমিটির সদস্য ও ইউপি সদস্য মো. আবদুল মতিন ও সাবেক সভাপতি কাজী মো. রফিকুল ইসলাম সহকারি শিক্ষকদের নিয়ে প্রতিষ্ঠানের নামে দেখানো এফডিআর যাছাই করতে বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংক এর মানিকছড়ি শাখায় আসেন। এ সময় ব্যাংক ব্যবস্থাপক দিলীপ কুমার দেওয়ান মাদরাসা কমিটির দেখানো হিসাব স্থিতি নিশ্চিতকরণ একটি ছাপা ফরমে হিসাব নং FD৩৪৭, P- ৩১৫/৩ উল্লেখিত একটি রশিদে গত ২৪.১০.২০২১তারিখে ৫০,০০০( পঞ্চাশ) হাজার টাকা স্থিতি নিশ্চিতকরণ দেখানো হয়েছে।

এতে ব্যাংক ব্যবস্থাপকের স্বাক্ষর ও সীল হুবহু নকল। পরে বিষয়টি নিয়ে ব্যাংক কর্তৃপক্ষ গভীর অনুসন্ধান করেও এর কোন সত্যতা পায়নি। এ বিষয়ে ব্যাংক ব্যবস্থাপক দিলীপ কুমার দেওয়ান বলেন, ঐ প্রতিষ্ঠানের নামে কৃষি ব্যাংক, মানিকছড়ি শাখায় কোন ধরণের হিসাব বা লেনদেন নেই। এটি চরম প্রতারণা।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

five × 1 =

আরও পড়ুন