মানিকছড়িতে শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়াম নির্মাণ প্রকল্প একনেকে অনুমোদন, প্রধানমন্ত্রীকে অভিনন্দন

fec-image

মানিকছড়ির ক্রীড়ামুদি দর্শক ও খেলোয়াড়দের বহুপ্রতিক্ষিত দাবি স্টেডিয়াম নির্মাণ। দীর্ঘ প্রতিক্ষার পর অবশেষে ৪ মে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা একনেক সভায় শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়াম নির্মাণ প্রকল্পে মানিকছড়িকে অগ্রাধিকার দেওয়ায় উপজেলা আওয়ামী লীগ পরিবার, ক্রীড়ামুদি খেলোয়াড় ও সুধী সমাজের পক্ষে প্রধানমন্ত্রীকে প্রাণঢালা অভিনন্দন।

উপজেলা প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলার প্রবেশদ্বার ও মংরাজার প্রাচীন আবাসস্থল মানিকছড়ি উপজেলায় শিক্ষা সংস্কৃতি, ইতিহাস ঐতিহ্যে ভরপুর এই সমতল ও পাহাড় ঘেরা জনপদে একটি স্টেডিয়াম নির্মাণে এখানকার ক্রীড়ামুদি খেলোয়াড়, দর্শক ও সুধী সমাজের দীর্ঘদিনের প্রাণের দাবি ছিল।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের ক্রীড়াঙ্গনকে নতুন সাজে সাজিয়ে তুলতে আধুনিক নানাবিধ প্রকল্পের অংশ হিসেবে দেশব্যাপী উপজেলা পর্যায়ে স্টেডিয়াম নির্মাণে পরিকল্পনা গ্রহন করেন। আর এসব স্টেডিয়াম নামকরণ করা হয় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর কনিষ্ঠ পুত্র শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়াম।
ফলে গত ৪ মে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত একনেক সভায় মানিকছড়ির মহামুনিস্থ চট্টগ্রাম-খাগড়াছড়ি মহাসড়ক ঘেঁষে, মহামুনি বাসস্টেশন এর দক্ষিণ-পশ্চিম পাশে মানিকছড়ি খালের পাড়ে তিন (৩) একর খাস ভূমির ওপর স্টেডিয়াম নির্মাণ প্রকল্পটি অনুমোদন প্রাপ্ত হয়।

এই খবর জনপদে ছড়িয়ে পড়লে খেলোয়াড়, দর্শক ও সুধী সমাজ স্বস্তিবোধ করেন। ফলে উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান মো. জয়নাল আবেদীন, উপজেলা নির্বাহী অফিসার তামান্না মাহমুদ, জেলা পরিষদ সদস্য ও উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক মো. মাঈন উদ্দীন উপজেলাবাসীর পক্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, খাগড়াছড়ি সাংসদ কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা ও জেলা প্রশাসক প্রতাপ চন্দ্র বিশ্বাসকে অভিনন্দন জানিয়েছেন।

উল্লেখ্য যে, ১৯৮৮ সালে তৎকালীণ সামরিক সরকার প্রেসিডেন্ট হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ মানিকছড়ি উপজেলায় সফরকালে উক্ত জায়গায় একটি পূর্ণাঙ্গ স্টেডিয়াম নির্মাণে ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করলেও পরবর্তীতে প্রশাসনিক অবহেলায় এটি আর হয়ে উঠেনি। কালের আর্বতে সেই প্রত্যাশিত ভূমিতে পূর্ণাঙ্গের স্থলে মিনি স্টেডিয়াম পাচ্ছে মানিকছড়িবাসী।

শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়াম নির্মাণে একনেক সভায় প্রকল্প অনুমোদনের সত্যতা নিশ্চিত করে উপজেলা নির্বাহী অফিসার তামান্না মাহমুদ বলেন, উপজেলাবাসীর দীর্ঘদিনের দাবি স্টেডিয়াম নির্মাণ প্রকল্পে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী অনুমোদন দিয়েছেন।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

four + thirteen =

আরও পড়ুন