মিয়ানমারের সঙ্গে আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিচ্ছিন্নের দাবিতে গ্রীসে মানববন্ধন

fec-image

রোহিঙ্গা নির্যাতন বন্ধ, জাতিসংঘের আন্তর্জাতিক আদালতে মিয়ানমারের বিচার এবং রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে ফিরিয়ে নেয়ার দাবিতে গ্রীসে বিশাল প্রতিবাদ সমাবেশ ও মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বুধবার রাজধানী এথেন্সের সংসদ ভবনের সামনে এই প্রতিবাদ সমাবেশের আয়োজন করা হয়।

গ্রীসের বর্ণবৈষম্য বিরোধী সংগঠন ইউনাইটেড মুভমেন্ট এগেইনস্ট রেসিজম এবং ফ্যাসিজমসহ কয়েকটি মানবাধিকার সংগঠন এবং বাংলাদেশ কমিউনিটি ইন গ্রীসের আয়োজনে এই সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।  প্রতিবাদ সমাবেশে ইউনাইটেড মুভমেন্ট এগেইনস্ট রেসিজম এবং ফ্যাসিজম এই সংগঠনের নেতৃবৃন্দ বলেন, মিয়ানমারের নির্বিচারে মানব হত্যায় সারা পৃথিবী আজ লজ্জিত। মিয়ানমার সে দেশের রোহিঙ্গা নারী, পুরুষ, শিশুদের নির্বিচারে গণহত্যা, ধর্ষণ, লুণ্ঠন, বাড়ি-ঘর পুড়িয়ে দেয়াসহ পৈশাচিক, বর্বর আচরণ করে তাদের দেশ থেকে বিতাড়িত করেছে। সেই প্রেক্ষিতে বাংলাদেশ ১০ লাখেরও বেশি রোহিঙ্গাকে আশ্রয় দিয়েছে। অথচ এখন মিয়ানমার তাদের ফেরত নিচ্ছে না।

মিয়ানমারের গণহত্যার বিচারের দাবিতে জাতিসংঘের আন্তর্জাতিক আদালতে মামলা দায়ের করেছে গাম্বিয়া। সেই মামলার শুনানি ১০,১১ এবং ১২ ডিসেম্বর নেদারল্যাণ্ডের হেগ শহরে অনুষ্ঠিত হচ্ছে। মিয়ানমারের নির্বিচার গণহত্যার প্রতিবাদ, রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে ফিরিয়ে নেয়া এবং জাতিসংঘে বিচারের দাবিতে সব দেশকে এক সঙ্গে কাজ করার আহ্বান জানানো হয়। তারা সমাবেশ থেকে মিয়ানমারের গণহত্যা ও লুণ্ঠনকারীদের বিচার ও রোহিঙ্গাদের স্বদেশে ফেরত নেয়ার দাবি জানান।

সমাবেশে রোহিঙ্গাদের দেশে ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়া এবং মানবতাবিরোধী মিয়ানমারের অপরাধীদের বিচারের দাবি সম্বলিত প্ল্যাকার্ডও ফেস্টুন প্রদর্শন করা হয়।

গ্রীসে বসবাসকারী বাংলাদেশ, ফিলিপাইন, মিশর, ভারত, পাকিস্তান, গাম্বিয়াসহ বিভিন্ন দেশের প্রতিনিধিরা অংশ নেন। প্রবাসী বাংলাদেশিদের বিভিন্ন সামাজিক, রাজনৈতিক, ব্যবসায়ী, সাংস্কৃতিক, জেলা ও বিভাগভিত্তিক আঞ্চলিক সংগঠন, নারী নেতাকর্মীরা প্রতিবাদ সমাবেশে অংশ নেয়।

সমাবেশ শেষে গ্রীসের সংসদ ভবন সিনতাগমার সামনে বিশাল এক মানববন্ধন এবং প্রতীকী অবস্থান কর্মসূচি পালন করা হয়। মানববন্ধনের পরে গ্রীসের জাতিসংঘ এবং এর অঙ্গ সংগঠনের প্রতিনিধি কাযার্লয়ে একটি স্মারকলিপি দেয়া হয়। গ্রীসে অবস্থিত ইউরোপীয় ইউনিয়নের প্রতিনিধির কার্যালয়ে আর একটি স্মারকলিপি প্রদান কর হয়।

গ্রীসে ইউনাইটেড মুভমেন্ট এগেইনস্ট রেসিজম এবং ফ্যাসিজম সংগঠনের পক্ষ থেকে জানানো  হয়, আগামী রবিবার ১৪ ডিসেম্বর তারিখে গ্রীসের সকল মানবাধিকার সংগঠনের উদ্যোগে একটি বিশাল সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে। এই সমাবেশেও মিয়ানমারের বিচার এবং রোহিঙ্গাদের ফিরিয়ে নেয়ার দাবি অত্যন্ত জোরোলো ভাবে তুলে ধরা হবে।

সূত্র: বিডি প্রতিদিন

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: আন্তর্জাতিক, গ্রীসে মানববন্ধন, জাতিসংঘের
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

fourteen − 1 =

আরও পড়ুন