মিয়ানমারে আটক ৬ বাংলাদেশী জেলেকে ফেরত

fec-image

দীর্ঘ ৩৭ দিন পর ৬ জন বাংলাদেশী জেলেকে হস্তান্তর করেছে মিয়ানমারের বর্ডার গার্ড পুলিশ (বিজিপি)। ৯ মার্চ (বুধবার) বিকাল ২টায় তাদেরকে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)’র কাছে হস্তান্তর করে।

গত ১ ফেব্রুয়ারি বঙ্গোপসাগরে মাছ শিকারে গিয়ে বোটের ইঞ্জিন বিকল হয়ে ভাসমান অবস্থায় মিয়ানমারের সীমানায় চলে গেলে ৬ জন বাংলাদেশী জেলেকে আটক করে বর্ডার গার্ড পুলিশ (বিজিপি)।

ফেরত আসা জেলেরা হচ্ছে- টেকনাফের বাহারছড়ার নোয়াখালী পায়ড়ার আবূু সোবহানের পুত্র আব্দুর রহমান , জাফর আহমদের পুত্র কেফায়েত উল্লাহ , নুর আহমদের পুত্র হামিদ উল্লাহ, রাজারাছড়ার হোছন আলীর পুত্র মুহাম্মদ তৈয়ুব, করাচি পাড়ার মোহাম্মদ ছফরের পুত্র আব্দুর রশিদ ও মিঠাপানির ছড়ার আবু তালেবের পুত্র মোহাম্মদ মামুন।

টেকনাফ ২ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল শেখ খালিদ মোহাম্মদ ইখতেখার সাংবাদিকদের জানান, গত ১ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশী ৬ জন জেলে ইঞ্জিন চালিত নৌকাযোগে সমুদ্রে মাছ ধরতে গেলে বোটের ইঞ্জিনা নষ্ট হয়ে ছয় জন জেলে মিয়ানমার এর সমূদ্র উপকূলে চলে যায় । মিয়ানমারের সীমান্তরক্ষী বাহিনী ( বিজিপি ) তাদের আটক করে জেলে বন্দি রাখে । বিষয়টি বিজিবি অবহিত হওয়ার পর বিজিবি-বিজিপি’র সাথে যোগাযোগ এবং মিয়ানমারের সিতওয়ে এ অবস্থিত বাংলাদেশ মিশনের সহায়তায় দীর্ঘ ৩৭ ( সাইত্রিশ ) দিনের প্রচেষ্টার পর ৯ মার্চ ওই জেলেদেরকে বাংলাদেশে ফেরত নিয়ে আসা সম্ভব হয়। বর্তমানে তারা বিজিবি’র হেফাজতে আছে। মিয়ানমার থেকে ফেরত আনা ছয়জন বাংলাদেশী জেলেদেরকে তাদের পরিবারের নিকট সকল প্রকার আইনী প্রক্রিয়া শেষে হস্তান্তর করা হয়েছে ।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: আটক, জেলেকে, ফেরত
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

20 + seventeen =

আরও পড়ুন