মিয়ানমারে শান্তি আলোচনার সময় রাখাইনে সংঘর্ষ বেড়েছে

fec-image

মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যের মিনবিয়া টাউনশিপে সোমবার মিয়ানমার সেনাবাহিনী ও আরাকান আর্মির (এএ) মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। এএ মুখপাত্র খাইং থুখা বলেছেন, মিয়ানমার সেনাবাহিনী হেলিকপ্টার থেকে এএ সেনাদের উপর বোমা বর্ষণ করেছে।

মিনবিয়া টাউনশিপ থেকে ৪ কিলোমিটার উত্তরপূর্বে কিয়াউ কা গ্রামে সকালে দুইবার এবং বিকালে একবার এএ’র সাথে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর ৪৪ ডিভিশানের যুদ্ধ হয়।

এএ মুখপাত্র দ্য ইরাবতীকে জানিয়েছেন, “সকাল ৯টা এব দুপুর ১২টার দিকে দুই বাহিনীর মধ্যে যুদ্ধ হয়েছে। সামরিক বাহিনী দুপুর ২টার দিকে তিনটি হেলিকপ্টার নিয়ে হামলা করে। সামরিক বাহিনী যেহেতু তাদের শক্তি বাড়িয়েছে, তাই এই সঙ্ঘাত আরও তীব্র হতে পারে”।

এএ মুখপাত্রের মতে, আরাকান আর্মি সেনাবাহিনীর তিনজন নিহত সেনার মৃতদেহ নিয়ে গেছে। তাদের কাছ থেকে পাওয়া তিনটি ছোট অস্ত্র, একটি পিস্তল ও সামরিক বাহিনীর ২০টি ঝুড়ি ভর্তি জিনিসপত্র হস্তগত করেছে তারা। কয়েকজন এএ যোদ্ধা সামান্য আহত হয়েছে।

এমন সময় এই সংঘর্ষ হলো যখন সরকারের শান্তি কমিশন, মিয়ানমার সেনাবাহিনী, আরাকান আর্মি, মিয়ানমার ন্যাশনাল ডেমোক্র্যাটিক অ্যালায়েন্স আর্মি ও তাং ন্যাশনাল লিবারেশান আর্মির মধ্যে শান রাজ্যের কেংটুংয়ের আলোচনা হওয়ার কথা। তবে সংঘর্ষ সত্বেও মঙ্গলবার ওই আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মিয়ানমার সেনাবাহিনীর ওয়েস্টার্ন কমান্ডের কর্নেল উইন জাউ উ এই সংঘর্ষের বিষয়টি নিশ্চিত করলেও তিনি জানান, এ ব্যাপারে বিস্তারিত তিনি জানেন না।

এই সংঘর্ষ কেংটুংয়ের শান্তি আলোচনার উপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলবে কি না – এমন প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, “আমি এর প্রভাব যাচাই করতে পারবো না। উচ্চ পর্যায়ের নেতারা এটা দেখবেন”।

মিনবিয়া টাউনশিপের কুয়ে কাইন গ্রামের স্থানীয় অধিবাসীরা জানিয়েছেন যে, তারা সোমবার বিকেলে তাদের গ্রামের উত্তরে পাহাড়ি এলাকায় সেনাবাহিনীর হেলিকপ্টারগুলো থেকে গুলি ছুড়তে দেখেছেন।

স্থানীয় অধিবাসী শোয়ে কাইন বলেন, “বেলা ২টার দিকে আমরা দেখি তিনটি হেলিকপ্টার আসছে। দুটি পাহাড়ী এলাকায় ঘুরে ঘুরে গুলি করছিল আর তৃতীয়টি পাহাড়ে দাঁড়িয়ে ছিল”।

তিনি বলেন, “গত রাতে আমরা ঘুমানোর সাহস করিনি কারণ আমরা আতঙ্কে ছিলাম যে গোলা আমাদের ঘরে আঘাত হানতে পারে। আবার গ্রামের বাইরে যাওয়ারও সাহস হয়নি আমাদের”।

কর্নেল উইন জাউ উ আরও জানান, সোমবার দুপুরে কিয়াউকতাউ টাউনশিপেও আরাকান আর্মির সাথে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর সংঘর্ষ হয়েছে।

সূত্র: সাউথএশিয়ানমনিটরডটকম

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: আরাকান আর্মি, দ্য ইরাবতী, রাখাইন
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

1 × 3 =

আরও পড়ুন