রঙ্গিখালি মাদ্রাসার মাঠে খেলাধুলা নিষিদ্ধ ঘোষণা

fec-image

টেকনাফের রঙ্গিখালি ফাজিল (ডিগ্রি) মাদ্রাসার মাঠে বহিরাগতদের খেলা নিয়ে উত্তেজনা বিরাজ করছে। যে কোনো মুহূর্তে বড় ধরণের দুর্ঘটনার আশঙ্কা করছে স্থানীয়রা। সংঘর্ষ এড়াতে আপাতত সকল ধরনের খেলাধুলা নিষিদ্ধ করেছে মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ।

প্রাক্তন ও বর্তমান ছাত্রদের অভিযোগ, দীর্ঘ দিন ধরে মাঠটিতে তারা খেলেছে। নামকরা অনেক ক্রীড়াবিদ সৃষ্টি হয়েছে এই মাঠ থেকেই। সম্প্রতি কিছু বখাটে ধরণের লোক মাদ্রাসার খেলার মাঠে বেপরোয়া আচরণ করে চলেছে। যে কারণে বহিরাগতদের খেলতে নিষেধ করেছে মাদ্রাসা কর্তৃপক্ষ।

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে মাদ্রাসার ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ ফরিদুল ইসলাম বলেন, অধ্যয়নরত ছাত্রদের খেলাধুলার জন্যই মাদ্রাসার মাঠ। মাঝেমধ্যে প্রাক্তনরা আবদার করে খেলতে পারে। কিন্তু বহিরাগতদের কারণে মাদ্রাসার ভাবমূর্তি ও আদব-কায়দার চরম ক্ষুন্ন হচ্ছে। এসব বিবেচনায় মাদ্রাসার মাঠে সকল ধরনের খেলাধুলা সম্পূর্ণ নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

পরবর্তী নির্দেশ দেয়া না দেয়া পর্যন্ত এ আদেশ জারি থাকবে জানিয়ে সোমবার (১৭ মে) মাইকিং করা হয়েছে বলে জানান অধ্যক্ষ ফরিদুল ইসলাম।

গুটি কয়েক বহিরাগত ব্যক্তির কারণে মাদ্রাসার নিয়মিত ছাত্রদের খেলাধুলার ব্যাঘাত ঘটছে। মাঠটি সকলের জন্য উম্মুক্ত নতুবা শুধুমাত্র নিয়মিত ছাত্রদের খেলার জন্য নির্দিষ্ট করার দাবি সাধারণ শিক্ষার্থীদের।

এদিকে, বহিরাগতের কারণে নিয়মিতরাও খেলা বঞ্চিত হওয়ায় সর্বমহলে ক্ষোভ বিরাজ করছে। তারা দ্রুত প্রতিকার চেয়েছে কমিটির কাছে।

জানতে চাইলে মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটির সহসভাপতি ইউনুস বাঙালি বলেছেন, মাদ্রাসার খেলার মাঠে মাদ্রাসার ছাত্ররাই খেলবে। বহিরাগতদের খেলা কিংবা টিম গঠনের কোন অধিকার নাই।

তিনি বলেন, টিম করতে হলে কমিটির সভাপতি ও উপজেলা প্রশাসনের অনুমতি লাগবে। এখানে যেমন ইচ্ছে তেমন করার সুযোগ নাই। বহিরাগতদের খেলতে দিলে সংঘাত-সংঘর্ষের আশঙ্কা করছেন ইউনুস বাঙালি।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

17 + eleven =

আরও পড়ুন