রাঙামাটিতে জশনে জুলুসে হাজারো মুসল্লির ঢল

fec-image

পবিত্র ঈদ-এ-মিলাদুন্নবী উপলক্ষে রাঙামাটিতে গাউছিয়া কমিটি বাংলাদেশ রাঙামাটি জেলা শাখার আয়োজনে জশনে জুলুস (বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা) অনুষ্ঠিত হয়েছে। শুক্রবার (৭ অক্টোবর) জুম্মার নামাজ শেষে এই জশনে জুলুছের আয়োজন করা হয়।

নামাজ শেষে বনরূপা জামে মসজিদ থেকে একটি বর্ণাঢ্য জশনে জুলুস শুরু হয়ে শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে রিজার্ভ বাজার জামে মসজিদে সমাপ্ত হয়। নানা রঙ-বেরঙের ব্যানার ফেস্টুন ও কলেমা খচিত পতাকা নিয়ে শত শত মুসল্লি জুলুছে যোগদান করেন।

জশনে জুলুসে নেতৃত্ব দেন জামেয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া আলিয়ার সাবেক ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ কাজী মাওলানা আবদুল ওয়াজেদ।

জুলুস শেষে রিজার্ভ বাজার জামে মসজিদে অনুষ্ঠিত সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। জেলা গাউছিয়া কমিটির সভাপতি হাজী মো. মুছা মাতব্বরের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত

আলোচনা সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন- ধর্মীয় সংগঠনটির সাধারন সম্পাদক মুহাম্মদ আবু সৈয়দ। জেলা গাউছিয়া কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক অধ্যক্ষ আলহাজ্ব জসিম উদ্দিন নুরীর পরিচালনায় এসময় উপস্থিত ছিলেন- রিজার্ভ বাজার জামে মসজিদের খতিব মাওলানা আবু নওশাদ নঈমী, জেলা গাউসিয়া কমিটির সাবেক সভাপতি হাজী জানে আলম সওদাগরসহ সংগঠনটির অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

এসময় বক্তারা বলেন, প্রিয় নবীজি (স.)-এর শুভাগমনে আল্লাহ পাক ফেরেশতাদের নিয়ে উর্ধ্বাকাশে জুলুস করেছিলেন, যা কোরআন-হাদিসের আয়াত দ্বারা সুস্পষ্ট প্রমাণিত। এছাড়াও এটি যুগ যুগ ধরে চলে আসছে। এই জুলুস নতুন কিছু নয়। তাই মিলাদুন্নবী উপলক্ষে জুলুস করা উত্তম কাজ।

আলোচনা সভায় বক্তারা রাষ্ট্রীয়ভাবে ঈদ-এ-মিলাদুন্নবী উদযাপনে সরকারের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। আলোচনা সভা শেষে দেশ ও জাতির কল্যাণ কামনায় বিশেষ মোনাজাত করা হয়।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

12 − 10 =

আরও পড়ুন