রাঙামাটিতে পরিচয় মিলছে না উদ্ধারকৃত অজ্ঞাত মরদেহের

fec-image

গত ১৯ এপ্রিল রাঙামাটিতে মস্তক বিচ্ছিন্ন অজ্ঞাত মরদেহ উদ্ধার করে কোতয়ালী থানা পুলিশ। তবে এ ঘটনায় হত্যা মামলা হলেও এখন পর্যন্ত নিহতের পরিচয় শনাক্ত করা যায়নি।

মঙ্গলবার (১১ জুন) জেলার কোতয়ালী থানার ওসি তদন্ত সাহেদ পারভেজ জানান, স্থানীয়রা খবর দিলে গত ১৯ এপ্রিল রাঙামাটি সদর উপজেলাধীন মগবান ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের কামিল্যাছড়ির ব্যঙছড়ি এলাকার গভীর জঙ্গলের গাছে ঝুলানো মস্তক মাটিতে পড়ে থাকা বিচ্ছিন্ন গলিত মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

তিনি জানান, উদ্ধারকৃত মরদেহটি পুরুষের এবং মস্তকবিহীন। মরদেহটি প্রায় গলে গেছে। উদ্ধারের সময় তার পরনে বেল্ট মোড়ানো প্যান্ট পড়া অবস্থায় ছিল। বাম হাতে কালো ফিতাযুক্ত একটি হাতঘড়ি পরা ছিল।

ওসি আরো জানান, ইতিমধ্যেই মরদেহের ডিএনএ পরীক্ষার জন্য প্রেরণ করা হয়েছে। ডিএনএ প্রোফাইল প্রেরণ করা হলে এবং সেখান থেকে প্রাপ্ত রিপোর্টের পর বিস্তারিত তথ্য পাওয়ার ব্যাপারে আমরা আশাবাদী। বিভিন্ন মাধ্যমে আমরা নিহতের পরিচয় শনাক্তের চেষ্টা অব্যাহত রেখেছি। এছাড়াও কারো কোনো স্বজন নিখোঁজ হয়ে থাকলে তারা বা তাদের স্বজনদের রাঙামাটি কোতয়ালী থানায় যোগাযোগ করার অনুরোধও জানিয়েছেন তিনি।

পুলিশ জানায়, ঘটনাস্থলে চকলেট রংয়ের একটি ব্যাগ, একপাতা রিবোর্টিল ক্লোনাজিপম, ফ্রুটিকার খালি বোতল, স্টিলের চাকু, মলাট বিহীন সাদা খাতা, সাদা রংয়ের একটি দড়ি, চকলেট রংয়ের ৪৩ সাইজের ফিতাযুক্ত এক জোড়া স্যু, সবুজ রংয়ের ৪১ ফুট লম্বা একটি দড়ি মরদেহ উদ্ধারের সময় পাওয়া গেছে।

মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে, নিহতের মরদেহ উদ্ধারের সময় প্রাথমিকভাবে উপস্থিত স্থানীয় লোকজনদের জিজ্ঞাসাবাদ ও ঘটনার পারিপার্শ্বিকতায় প্রকাশ পায় যে, উক্ত অজ্ঞাতনামা প্রায় গলিত একজন পুরুষ ব্যক্তিকে আনুমানিক বয়স (৩৫) প্রায় একমাস পূর্বেই খুন করা হয়েছে। স্থানীয় বিভিন্ন মাধ্যমে খবর নিয়ে এই ঘটনাটি একটি হত্যার ঘটনা বলে মনে করছেন তদন্তকারী কর্মকর্তারা।

এই ঘটনায় কোতয়ালী থানায় ২০/০৪/২৪ তারিখে পেনাল কোডের ৩০২/৩৪ ধারায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করা হয়েছে। যার মামলা নাম্বার-১৩।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: মরদেহ উদ্ধার, রাঙামাটি
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন