রাঙামাটিতে বাড়ছে করোনা রোগী, জাতীয় হারকে মানাচ্ছে হার

fec-image

পার্বত্য জেলা রাঙামাটিতে হঠাৎ করে করোনা রোগীর সংখ্যা বেড়ে যাচ্ছে। জনসংখ্যার ঘনত্ব কম থাকলেও উপজেলাগুলোর প্রত্যন্ত অঞ্চলগুলোতে আক্রান্ত রোগীর সন্ধান পাওয়া যাচ্ছে। বর্তমানে রাঙামাটিতে করোনা সংক্রমণের হার জাতীয় হারের চেয়ে বেশি। স্থানীয় সচেতন মহল মনে করছে যদি কোনরূপভাবে মানুষ সচেতন না হয় তাহলে পাহাড়ের বাসিন্দাদের ভয়াবহ পরিস্থিতির মুখোমুখি হতে হবে।

এদিকে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানানো হয়, শুক্রবার (৩০জুলাই) কোন ধরণের পরিক্ষা করা হয় না। তবে ২৯ জুলাই সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী রাঙামাটি পিসিআর ল্যাব ও এন্টিজিনায় ২০৩ জন নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এরমধ্যে ৫৫ জনের পজেটিভ আসে। আক্রান্ত ৫৫ জনের মধ্যে রাঙামাটি সদর উপজেলায় ৩১ জন, কাপ্তাইয়ে ১০ জন, রাজস্থলীতে ৩ জন, কাউখালীতে ৩ জন, বিলাইছড়িতে ৩ জন, লংগদুতে ২ জন, নানিয়ারচরে ১ জন এবং বাঘাইছড়ি উপজেলায় ২ জন আক্রান্ত হয়েছেন। সংক্রমণের হার ২৭.৭৩% পার্সেন্ট। রাঙামাটিতে এই পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন দুই হাজার ৭২৯ জন, সুস্থ্য হয়েছেন দুই হাজার ১১ জন। রাঙামাটিতে মোট মারা গেছেন ২২ জন। রাঙামাটিতে এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা করেছেন ১৬ হাজার ২৭৮ জন এরমধ্যে নেগেটিভ এসেছে ১৩ হাজার ৫৪৯জনের। রাঙামাটিতে করোনা টিকার প্রথম ডোজ নিয়েছেন ৪৭ হাজার ৯৮৯ জন এবং দ্বিতীয় ডোজ গ্রহণ করেছেন ১৯ হাজার ৯৫ জন।

রাঙামাটির সিভিল সার্জন ডা: বিপাশ খীসা জানান, মানুষের অসতর্ক চলাফেরা ও স্বাস্থ্যবিধি না মানার কারণে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। করোনা আক্রান্ত রোগীর বেশীর ভাগ রোগী হোম আইসোলশনে চিকিৎসা নিচ্ছেন। তারা বাসায় আলাদাভাবে চিকিৎসা নেয়ার কথা থাকলেও পরিবারের সংমিশ্রণে থাকার কারণে পরিবারের অন্য সদস্যরাও আক্রান্ত হচ্ছেন।

এছাড়া বেশীর ভাগ রোগী বাসায় থাকছেন না, বাজারসহ বিভিন্ন এলাকায় ঘোরাফেরা করে এতে সংক্রমণের ঝুঁকি বাড়াচ্ছে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

twenty + 3 =

আরও পড়ুন