রাঙামাটিতে শূকরের মাংসের দাম বেড়েছে

fec-image

রাঙামাটিতে বেশ কয়েকমাস ধরে শূকরের মাংসের দাম বেড়েছে। ব্যবসায়ী এবং ক্রেতাদের সাথে কথা বলে এমন তথ্য জানা গেছে।

সরেজমিনে গেলে দেখা যায়, জেলা শহরের বনরূপা এলাকার ব্যবসায়ীরা হাটবাজারে বসে শূকরের মাংস বিক্রি করছেন। ক্রেতারা তাদের সাধ্য অনুযায়ী এসব মাংস ক্রয় করছেন।

শহরের বনরূপা এলাকার শূকরের মাংসের ব্যবসায়ী অঞ্জন ত্রিপুরা বলেন, বিজুর সময় থেকে শূকরের মাংসের দাম বেড়েছে। প্রতিকেজি শূকরের মাংস বিক্রি হচ্ছে ৫০০ টাকায়। বিঝুর পূর্বে শূকরের মাংস বিক্রি হয়েছিল ৩৫০ টাকা থেকে শুরু করে ৪০০ টাকায়।

শূকরের মাংসের ক্রেতা রনবির চাকমা বলেন, বিজুর কিছুদিন আগে থেকে ৬০০-৬৫০ টাকা কেজি ধরে শূকরের মাংস আমি কিনেছি। বর্তমানে বাজারে বিক্রি করা হচ্ছে ৫০০ টাকায়। দাম বাড়লেও করার কিছু নেই। খেতে তো হবে। তাই বাড়ির সদস্যদের জন্য কিনে নিচ্ছি। অথচ মাসখানেক আগে শূকরের মাংস বাজারে বিক্রি হয়েছিল কেজিতে ৩৫০ টাকা থেকে ৪০০ টাকায়।

মোহন ত্রিপুরা বলেন, দাম বাড়ার মূল কারণ হলো-শূকরের মাংসগুলো আমাদের অনেক দূরের অঞ্চল থেকে কিনে আনতে হয়। পরিবহন ভাড়া বেড়েছে। যে কারণে আমাদের দাম বাড়াতে হয়েছে। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, জেলার বিলাইছড়ি উপজেলা, ফারুয়া ইউনিয়ন, বাঘাইছড়ির সাজেক, জেলা সদরের বন্ধুকভাঙা ইউনিয়ন, মগবান ইউনিয়নের বড় গাঙ, কাপ্তাই উপজেলা, খাগড়াছড়ির মহালছড়ি এবং বান্দরবান থেকে এসব মাংস ক্রয় করতে হয়। এছাড়া বর্তমানে শূকর পালন কম করছে মানুষ। চাহিদা অনুযায়ী শূকর পালন না করার কারণে দিনদিন শূকরের মাংসের দাম বৃদ্ধি পাচ্ছে।

একই বাজারের শূকরের মাংসের ব্যবসায়ী রূপন ত্রিপুরা বলেন, আমি শূকরের মাংস বিক্রি করছি কেজি ৮০০ টাকায়। এত দাম কেন এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, যারা হাটে শূকরের মাংস বিক্রি করেছে তারা ফ্রিজিয়ান করে এসব মাংস রেখেছিল। তাই তারা কেজিতে ৫০০ টাকায় বিক্রি করছে কিন্তু আমারগুলো তাজা মাংস। আমি আজকে বিলাছড়ি থেকে এনে বিক্রি করছি। তাই আমি বেশি দামে বিক্রি করছি।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: দাম বেড়েছে, রাঙামাটি, শূকরের মাংস
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

seventeen − 12 =

আরও পড়ুন