রাঙামাটিতে সিএনজিতে পাহাড়ি সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘট চলছে

fec-image

রাঙামাটি শহরে পাহাড়ি সন্ত্রাসী কর্তৃক অটোরিকশা ভাংচুরের ঘটনায় অনির্দিষ্টকালের ধর্মঘট পালন করছে অটোরিকশা শ্রমিক ইউনিয়ন ও চালক কল্যাণ সমিতি।

রোববার (১৮ সেপ্টেম্বর) সকাল থেকে ঘটনার প্রতিবাদ হিসেবে জেলা শহরে সকল অটোরিকশা চলাচল বন্ধ রেখেছে।

এদিকে অটোরিকশা চলাচল বন্ধ থাকায় সাধারণ যাত্রী, বিভিন্ন দূর-দূরান্ত থেকে আসা স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থী এবং অফিসগামী সরকারি-বেসরকারি কর্মচারীরা তাদের স্ব-স্ব প্রতিষ্ঠানে ভোগান্তিতে পড়েছেন।

দেশের একমাত্র রিকশাবিহীন রাঙামাটি শহরে যোগাযোগের প্রধান মাধ্যম হলো অটোরিকশা। শহরের বাসিন্দাদের নির্ভরশীল একমাত্র বাহনটি বন্ধ থাকায় যোগাযোগ ব্যবস্থা অচল হয়ে পড়েছে।

জানা যায়, শনিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) রাতে জেলা শহরের রাঙাপানি এলাকায় অটোরিকশা শ্রমিক ইউনিয়ন ও চালক কল্যাণ সমিতির সদস্য চালক আবুল হোসেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হাজী মুছা মাতব্বরের এলএনজি স্টেশন থেকে রিফিল করে গাড়ি নিয়ে ফিরার পথে গাড়িটিকে লক্ষ্য করে কয়েকটি পাথর ছোঁড়া হয়। এতে চালক আহত হন এবং গাড়িটি ক্ষতিগ্রস্ত হয়। এ ঘটনার পরপরই রোববার সকাল থেকে সংগঠনটির নেতৃবৃন্দ অনির্দিষ্টকালের জন্য অটোরিকশা চলাচল বন্ধ রাখার ঘোষণা দেয়।

এর আগে রাঙামাটি সদরের জীবতলী ইউনিয়নের আগরবাগান এলাকায় চাঁদার টোকেন না থাকায় একটি অটোরিকশা পুড়িয়ে দেয় দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনার জন্য চালক সমিতি পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতি (পিসিজেএসএস) সন্তু গ্রুপকে দায়ী করেছে। একইদিন বিকেলে চালক সমিতির নেতৃবৃন্দ জেলা শহরে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভা করে তিনদফা দাবি জানিয়ে ৪৮ ঘন্টার আল্টিমেটাম দেয়।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: ধর্মঘট, পাহাড়ি সন্ত্রাসী, রাঙামাটি
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

seventeen − eleven =

আরও পড়ুন