রাঙামাটি ছাত্রলীগের সন্মেলন নিয়ে দ্বন্দ্ব

fec-image

রাঙামাটি ছাত্রলীগের সন্মেলন নিয়ে দ্বিধা-দ্বন্দ্ব সৃষ্টি হয়েছে। এ সন্মেলন সংবিধান বিরোধী এবং নিয়ম বহির্ভুত বলে অভিযোগ তুলেছেন জেলা ছাত্রলীগের দপ্তর সম্পাদক মো. নুর আলম এবং উপ-দপ্তর সম্পাদক জহিরুল ইসলাম স্বাধীন।

মঙ্গলবার (১৬জুলাই) বিকেলে গণমাধ্যমে সংগঠনটির নেতৃবৃন্দরা এক প্রেস বার্তায় এ তথ্য জানায়।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়- রাঙামাটি জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদক নিজেরাই সকল কাজ সম্পাদন করে যাচ্ছেন। জেলা ছাত্রলীগের দপ্তর সম্পাদক হিসেবে আমাদের দায়িত্ব কি?

বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়- জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি-সম্পাদকের এ যাবৎকালের সকল সিন্ধান্ত তাদের নিজস্ব সিন্ধান্ত। ছাত্রলীগের যে কোন সিন্ধান্ত নিতে হলে অবশ্যই সভা ডেকে সকলের সাথে আলোচনা করে সভার সিন্ধান্ত নিতে হয়। কিন্তু সন্মেলনের মতো গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে জেলার সভাপতি ও সম্পাদক সভা না করেই অনেকটা একক ভাবে বিভিন্ন ইউনিটের সন্মেলনের তারিখ ঘোষণা করেন। যা অনেকটা ছাত্রলীগের গঠনতন্ত্র পরিপন্থি। এ ধরণের স্বেচ্ছাচারিতার উদ্দেশ্য তাদের বোধগম্য নয় বলে বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়।

বিজ্ঞপ্তি বলা হয়- বঙ্গবন্ধুর হাতে গড়া সংগঠনটি শক্তিশালী হউক, সেই লক্ষে সন্মেলন জরুরী কিন্তু জেলা ছাত্রলীগের এক তৃতীয় সদস্যই সন্মেলনের বিষয়ে না জানার কারণে বিভ্রান্ত তৈরি হয়েছে। তাই সকলে এ বিষয়ে সচেতনা থাকার অনুরোধ হইলো এবং এই ঘোষণাকে কেন্দ্র করে কোন ধরণের বিশৃঙ্খলা তৈরি হলে তার দায়িত্ব জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের বলে যোগ করা হয়।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: ছাত্রলীগের, রাঙামাটি, সন্মেলন
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

2 + 6 =

আরও পড়ুন