রাজনীতির মাঠে বহিষ্কৃত আ’লীগ নেতা কাজী মুজিব

fec-image

ছয় বছর পর বান্দরবান জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক কাজী মুজিবুর রহমানকে পূনরায় রাজনীতির মাঠে দেখা গেছে। জাতীয় রাজতৈক দলের বাইরে গিয়ে পাহাড়ে সন্ত্রাস বিরোধী একটি বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশে তিনি অংশ নেন।

বুধবার (২১ আগস্ট) সকাল ১০টায় পার্বত্য বাঙ্গালী ছাত্র পরিষদ ও সচেতন নাগরিক সমাজ এই বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সভার আয়োজন করে।  বাঙ্গালি ছাত্র পরিষদের আহবায়ক মিজানুর রহমান আকন্দ এর সভাপতিত্বে প্রতিবাদ সভাটি আয়োজন করা হয় রুমায় তিন বাঙ্গালি গাড়ি চালক অপহরণসহ সাম্প্রতিক সময় পার্বত্য জেলায় উপজাতী সন্ত্রাসী কর্তৃক ধারাবাহিক ক্লিলিং মিশন, অপহরণ, চাঁদাবাজির বিরুদ্ধে।

বুধবার সকালে কয়েক শতাধিক নারী-পুরুষের অংশ গ্রহণে বিক্ষোভ মিছিলটি হোটেল হিলবার্ড এর সামনে থেকে শুরু হয়। পরে জেলা শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে বঙ্গবন্ধু মুক্তমঞ্চে গিয়ে প্রতিবাদ সভায় মিলিত হয়।

এতে বক্তারা সম্প্রীতির বান্দরবানে মানুষের নিরাপত্তা, রুমায় অপহরণকারী ও রাজস্থলীতে সেনা সদস্য হত্যাকারীসহ পাহাড়ি সন্ত্রাসীদের শাস্তির দাবি, বৈষম্যহীন প্রশাসন গঠন, নতুন সেনা ক্যাম্প স্থাপনের দাবী জানান।

প্রতিবাদ সভা ও মিছিলে সাবেক সচিব ও বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ ওহাব, অবসরপ্রাপ্ত সেনা কর্মকর্তা কর্নেল এস এম আইয়ুব, সাবেক জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি মোঃ নাজিম উদ্দিনসহ বাঙ্গালী ছাত্র পরিষদ এবং বিভিন্ন পেশাজীবি শ্রেণীর ব্যক্তিবর্গ অংশ নেন।

দীর্ঘদিন পর শত শত মানুষ নিয়ে জননিরাপত্তার দাবিতে কাজী মুজিবের মাঠে নামা নিয়ে সর্বত্র আলোচনার ঝড় উঠেছে। এর আগে গত মাসখানেক ধরে বিভিন্ন রাজনৈতিক দল ও পেশাজীবিদের সাথে কয়েক দফা বৈঠকও করেছেন কাজী মুজিব।

এদিকে সচেতন নাগরিক সমাজের বিক্ষোভ মিছিল, প্রতিবাদ সভা ছাড়াও ২১ আগষ্ট গ্রেনেড হামলার ঘটনায় জেলা আওয়ামী লীগ কর্তৃক সমাবেশ ঘিরে জেলা শহরে পুলিশের অতিরিক্ত সদস্য মোতায়েন করা হয়।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: আওয়ামী লীগ, পার্বত্য বাঙ্গালী ছাত্র পরিষদ
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

thirteen + 1 =

আরও পড়ুন