রাজস্থলীতে অপহরণকারী সন্দেহে ২ ব্যবসায়ীকে মারধরের অভিযোগ

fec-image

রাঙামাটির রাজস্থলী উপজেলার বাঙ্গাহালিয়া বাজারে স্থানীয় অটোরিক্সা সমিতির সভাপতি আনিস তালুকদার কালু ও সাধারণ সম্পাদক মোঃ সবুর হোসেনের নেতৃত্বে ১০-১৫জনের একটি দল কর্তৃক অত্র বাজারের ব্যবসায়ী শিহাব ও আবু মং নামক ২ব্যবসায়ীকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে। মঙ্গলবার ভোরে বাজারের পাশে নিজ বসতবাড়ীতে এ মারধরের ঘটনা ঘটে।

ভুক্তভোগী আবু মং ও শিহাব প্রতিবেদককে জানান, মঙ্গলবার (৫ নভেম্বর) ভোরে হঠাৎ আমার বাসায় অটোরিক্সা সমিতির সভাপতি আনিস তালুকদার কালু ও সাধারণ সম্পাদক মোঃ সবুর হোসেনের নেতৃত্বে অত্র সমিতির ১০-১৫জনের একটি গ্রুপ ঘরের দরজা ভেঙ্গে আমাকে ও আমার সাথে থাকা শিহাবকে ২ঘন্টাব্যাপী বেধড়ক মারধর করে। এ সময় আমি ও আমার সাথে থাকা শিহাব গুরুতর আহত হই। পরবর্তীতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা আমাদের উদ্ধার করে।

কিন্তু আমাদের কেনো মারা হয়েছে আমরা জানি না। এ বিষয়ে জানতে চেয়েও আমরা হামলাকারীদের কাছে কোন উত্তর পায়নি। তারা জানান, হামলাকারীরা প্রভাবশালী। আমরা ভয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারছি না। তবে এলাকাবাসী ও অভিবাবকদের সাথে বিষয়টি নিয়ে আলাপ-আলোচনার মধ্য দিয়ে হামলাকারীদের বিরুদ্ধে আমরা আইনানুগ ব্যবস্থা নিবো।

অভিযুক্তদের হামলার বিষয়ে কথা বলতে চাইলে অটোরিক্সা সমিতির সাধারণ সম্পাদক মোঃ সবুর হোসেন জানান, বাঙ্গালহালিয়া অটোরিক্সা সমিতির সদস্য সাল্লাহ উদ্দিন গত শনিবার নিখোঁজ হয়। নিখোঁজ এর দিন রাতে সাল্লাহ উদ্দিন শিহাব ও আবু মং এর সাথে ছিলো। সমিতি ও সকলের ধারণা শিহাব ও আবু মং সাল্লাহ উদ্দিনকে তারা অপহরণ করেছে। এই জন্য অভিযুক্ত ২জনকে ডেকে নিয়ে আসা হয় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিয়ে আসা হলে এ সময় সমিতির সদস্যদের মাধ্যমে মারধরের একটি অনাকাঙ্খিত ঘটনা ঘটে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে চন্দ্রঘোনা থানার ওসি মোঃ জহিরুল আনোয়ার বলেন, আমরা ঘটনাটি শুনেছি। এ ঘটনায় কেউ থানায় কোন লিখিত অভিযোগ করেনি। অভিযোগ করলে আমরা আইনানুগ ব্যবস্থা নিবো।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

5 × 2 =

আরও পড়ুন