রাজস্থলীতে সেনাবাহিনীর অভিযানে সাড়ে তিন লাখ টাকার অবৈধ সেগুন কাঠ জব্দ 

fec-image

রাঙামাটি জেলার রাজস্থলী উপজেলার ২নং গাইন্দ্যা ইউনিয়নের তুলাছড়ি পাড়া এলাকা থেকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সেনাবাহিনী অভিযান চালিয়ে সাড়ে তিন লাখ টাকার অবৈধ সেগুন কাঠ জব্দ করেছে।

কাপ্তাই জোন অটল ৫৬ বেঙ্গলের অধিনে রাজস্থলী ক্যাম্পের সিনিয়র ওয়ারেন্ড অফিসার আশরাফুল ইসলামের নেতৃত্বে গতকার ২৮ মার্চ (সোমবার) সন্ধ্যা ৭টায় অভিযান চালিয়ে ১৭৩.৮৬ ঘন ফুট অবৈধ এই সেগুন গোল কাঠ আটক করতে সক্ষম হয়।

এলাকাবাসী ও বন বিভাগের সূত্রে জানাযায়, রাজস্থলী উপজেলার তুলাছড়ি এলাকায় রাতের আঁধারে পাচারের উদ্দেশ্যে কাঠ গুলো পরিবহন যোগে পাচারের উদ্যােশে স্তুপ করা হলে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে সেগুনের, গোল কাঠগুলো আটক করেছে সেনাবাহিনী। এ দিকে সেনাবাহিনীর উপস্থিতি টের পেয়ে কাঠ পাচারকারিরা পালিয়ে যায়। আটককৃত কাঠের আনুমানিক মূল্য সাড়ে তিন লক্ষ টাকা হবে বলে জানাগেছে।

বন বিভাগের দায়িত্বরত রাজস্থলী সদর রেঞ্জ অফিসার মুসতাফিজুর রহমান বলেন, আমাদের লোকবল সংকটের কারণে কাঠ পাচার রোধ করা সম্ভব হচ্ছে না। তবে প্রতিদিন কাঠ পাচার রোধ অব্যাহত থাকবে। আটককৃত কাঠ গুলো সেনাবাহিনীর মাধ্যমে রাজস্থলী সদর রেঞ্জে হস্তান্তর করা হয়েছে ও আটককৃত কাঠ ব্যবসার সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে বন মামলা দায়ের প্রস্তুতি চলছে বলে রেঞ্জ কর্মকর্তা জানান।

এদিকে দীর্ঘ দিন ধরে সরকারের রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে অবৈধ কাঠ পাচার কারীরা রাজস্থলীর তাইতংপাড়া,কুটির শিল্প এলাকা, বড়ইতলি হাজীপাড়া, তালুকদার পাড়া সহ বিভিন্ন এলাকা থেকে গাছ সংগ্রহ করে ইসলামপুর জামতালা হয়ে, টেংখালী, শফিপুর উপরের মসজিদ রোড হয়ে রমতিয়া পাড়া সড়ক দিয়ে প্রতিদিন লক্ষ লক্ষ টাকার মূল্যবান অবৈধ সেগুনের গোল কাঠ সহ বিভিন্ন প্রজাতির রদ্দা পাচার করে আসছে।

কাঠ পাচার রোধ করা সম্ভব না হলে অদূর ভবিষ্যতে পার্বত্য অঞ্চলের পরিবেশ রক্ষা করা কঠিন হয়ে পড়বে। এতে কোন সন্দেহ নেই। ফলে বন বিভাগের লোকবল সংকট নিরসন করে বন রক্ষার্থে জরুরী হয়ে পড়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

1 × three =

আরও পড়ুন