রাজস্থলীর আউয়াল মাস্টার পাচ্ছেন বঙ্গবন্ধু জাতীয় কৃষি পুরস্কার

fec-image

পার্বত্য রাঙামাটির রাজস্থলীর আনাচে-কানাচে এখন দেখা মেলে বিভিন্ন ফুল ও ফলের বাগান। রাজস্থলীর পাহাড়ে জুমের ফসল উৎপাদন কমে যাওয়ায় পাহাড়িরা এখন জুম চাষ ছেড়ে অনেকেই মিশ্র ফলের বাগানে উৎসাহী হয়ে উঠেছেন। আর এতে উপজেলার জান্তিমইন, মাঘাইন পাড়াসহ বাঙালহালিয়ার এলাকায় বসবাসকারী পাহাড়ি বাঙালির জনগোষ্ঠীর জীবনমান পাল্টে গেছে।

মিশ্র ফল বিভিন্ন প্রজাতির ফুলের, ফলজ, বনজ ও ঔষধি বাগান গড়তে যিনি উৎসাহ যুগিয়েছেন তিনি হলেন সেখানকারই একজন সবুজ হর্টিকালচার নার্সারির মালিক মো. আউয়াল হোসেন । পার্বত্য রাঙামাটি জেলা শহর থেকে ৫২ কিলোমিটার দূরে রাজস্থলী সড়কের পাশ ঘেঁষে ৩নং বাঙালহালিয়া ইউনিয়নের শফিপুর গ্রাম তার ঠিকানা। গ্রামটি মূল সড়ক থেকে ৫০ গজ । তিনি রাজস্থলী উপজেলার শতশত পাহাড়ি-বাঙলি চাষিদের যিনি পথ দেখিয়েছেন তিনি হলেন এই আনসার ভি ডি পির প্লাটুন কমান্ডার মো. আউয়াল হোসেন। তিনি ৮৪/৮৫ সালে শিক্ষকতা করেছেন, সে জন্য তাকে সবাই আউয়াল মাস্টার হিসেবে ডাকেন ।

পড়ালেখা করেছেন এস এস সি পর্যন্ত কিন্তু চাষাবাদে বিশেষ করে তিনি ফল বাগান নিয়ে অনেক জ্ঞান অর্জন করেছেন। তিনি প্রতিবছর উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে জাতীয় কৃষি মেলায় সবুজ নার্সারি স্টল স্থাপন করে পুরস্কার লাভ করেন । তার সাফল্যে অনুপ্রাণিত হয়ে পাহাড়ের মানুষ ও পাশ্ববর্তী রাঙুনিয়া উপজেলার অনেকেই এখন মিশ্র ফলের বাগান গড়ে তুলেছেন। শফিপুর এলাকায় তার সবুজ হর্টিকালচার নার্সারিতে শোভা পাচ্ছে , বিভিন্ন জাতের চারা ও কলম। যেমন- পেঁপে, আম, লুক লুকি, লকটন, ডালিম বিলাতিগাব, লিচু, রুপালী আম সফেদাসহ অসংখ্য ফুল ও ফলের চারা ।

অনেকেই ভিড় জমান আউয়াল মাস্টারের এই নার্সারি দেখতে এবং চারা কিনতে। এলাকার বিত্তবানরা জানতে চান কীভাবে তিনি নার্সারি করে এই সাফল্য অর্জন সম্ভব করেছেন। তাদের জবাবে আউয়াল বলেন, মানুষ কখনো নিজের ভাগ্য বদলাতে পারে না, কিন্তু পরিশ্রম করে ভাগ্য বদলানো সম্ভব। এখন তিনি পার্বত্য রাজস্থলীর এক সফল নার্সারির মালিক । হাজারো মানুষের অনুপ্রেরণা। ইতোমধ্যে বেশ কয়েকটি পুরস্কার ও ২০২০ সালে আনসার ভিডিপির প্রেসিডেন্ট পদক পেয়েছেন এবং ময়মনসিংহ উন্মুক্ত বিশ্ব বিদ্যালয় হতে নার্সারির উপর ১৪ দিনের প্রশিক্ষণ নেন আউয়াল মাস্টার । এবার তিনি বঙ্গবন্ধু জাতীয় কৃষি পুরস্কারে ভূষিত হচ্ছেন। আগামী তিন অক্টোবর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই পুরস্কার তুলে দিবেন। বঙ্গবন্ধু কৃষি পুরস্কার ট্রাস্টি বোর্ড সেরা সফল নার্সারি নির্বাচিত করেছেন। মো. আউয়াল হোসেন ব্রোঞ্জ পদক, নগদ ২৫ হাজার টাকা ও সনদ পাচ্ছেন।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: আউয়াল মাস্টার, বঙ্গবন্ধু জাতীয় কৃষি পুরস্কার, রাজস্থলী
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

5 × one =

আরও পড়ুন