রামগড়ে পিতা হত্যা মামলায় ছেলে এরফান আলীর মৃত্যুদণ্ড

fec-image

খাগড়াছড়ির রামগড়ে মাদকের টাকার জন্য পিতা জসিম উদ্দিনকে পিটিয়ে হত্যার ঘটনায় ছেলে এরফান আলীকে (২৯) মৃত্যুদণ্ড দিয়েছে আদালত। বুধবার (২০ নভেম্বর) সকালে খাগড়াছড়ি জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক রেজা মো: আলমগীর হাসান এ রায় দেন। একই সাথে বিচারক ৫ হাজার টাকা অর্থদন্ডও দেন। এ সময় মামলার আসামি এরফান আলী আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

পাবলিক প্রসিকিউটর এডভোকেট বিধান কানুনগো রায়ে সন্তুষ্টি প্রকাশ করে বলেন, মামলা চলাকালীন রাষ্ট্রপক্ষ মোট ১০ জনের স্বাক্ষ্য আদালতে উপস্থাপন করা হয়।

উল্লেখ্য, ২০১৪ সালের ২৪ ফেব্রুয়ারি বেলা ১১ টার দিকে রামগড় উপজেলার বলিটিলা এলাকায় মাদকাসক্ত এরফান আলীর ঘরে ঢুকে বিদেশ ফেরত তার পিতা মো: হানিফকে এলোপাথারী কুপিয়ে হত্যা করে। এ সময় হানিফ ঘরে বিশ্রাম নিচ্ছিলেন। ঘটনা দেখে এরফানের মা আনোয়রা বেগম চিৎকার করলে পাশ্ববর্তী লোকজন এসে ছেলেকে আটক করে এবং পরে খবর পেয়ে পুলিশ আসলে পুলিশে সোর্পদ করা হয়।

এ ঘটনায় এরফান আলীর মা আনোয়ারা বেগম বাদী হয়ে হত্যা মামলা দায়ের করেন। একই বছরের ৩১ আগষ্ট পুলিশ এরফানকে একমাত্র আসামি করে চার্জশীট প্রদান করে।

মামলার এজাহারে বাদী বলেন, তার স্বামী প্রবাসী জসিম উদ্দিন মৃত্যুর ৬ মাস আগে বিদেশ থেকে দেশে ফেরেন। নেশাগ্রস্থ এরফান মাদক সেবনের টাকা চেয়ে পিতার সাথে প্রায় বাক বিতন্ডায় জড়াতো। তারই জেরে তার স্বামী জসিম উদ্দিনকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে ছেলে এরফান আলী।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

7 + seven =

আরও পড়ুন