রামগড় ফেনী-ঢাকা সড়কে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে চলছে যানবাহন

রামগড় প্রতিনিধিঃ
দেশের প্রধান প্রধান সড়কের সাথে খাগড়াছড়ি পার্বত্য অঞ্চলের একমাত্র যোগাযোগ রক্ষাকারী রামগড়- ফেনী সড়ক। সরেজমিনে দেখা যায়, রামগড়-ফেনী সড়কে ১৮টি কংক্রীট ও বেইলি ব্রিজ বর্তমানে মরণ ফাঁদে পরিণত হয়েছে। এ ঝুঁকিপূর্ণ সড়ক দিয়ে প্রতিদিন হাজার হাজার যাত্রী প্রাণ হাতে নিয়ে এবং পার্বত্য অঞ্চল থেকে ট্রাক বোঝাই ভারী কাঁচামাল এই সেতুগুলি দিয়ে যাতায়াত করতে হচ্ছে। সড়ক ও জনপথ বিভাগ কোথাও লাল পতাকা কোথা সতর্কীকরণ সাইনবোর্ড টাঙ্গিয়ে কোন রকমে দায়িত্ব পালন করছে।

জানা যায়, ১৯২০ সালে রামগড় মহকুমা শহরকে উন্নয়নের লক্ষ্যে সমতল জেলার সাথে পার্বত্য অঞ্চলের সড়ক যোগাযোগের জন্য ১৯৬০-১৯৬১ সালে রামগড় করেরহাট সড়কটি নির্মান করা হয়। ওই সময়ের নির্মিত পাকা এবং বেইলি ব্রিজগুলো এখন জরাজীর্ণ অবস্থায় ঝুঁকি নিয়ে প্রতিদিন যানবাহন চলাচল করছে । ১০ টি পাকা ও ৪ টি বেইলি ব্রিজের বর্তমান অবস্থা খুবই বিপজ্জনক। এর মধ্যে সোনাইপুল, বাগান বাজার, কালাপানি, কয়লার মুখ, ভাঙ্গা টাওয়ার ব্রিজগুলির অবস্থা পদে পদে মৃত্যু ফাঁদ তৈরী হয়ে আছে।

রামগড় বাজারের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী কফিল উদ্দিন জানান, ব্যবসায়ীক কাজে প্রায় ফেনী, চট্টগ্রাম যাওয়া আসা করতে হয় প্রাণ হাতে নিয়ে।
রামগড় বাস মিনিবাস পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের সেক্রেটারী জাহাঙ্গীর আলম অভিযোগ করে বলেন, বিগত তিন বছর আগে খাগড়াছড়ি থেকে ফেনীর সড়ক ও জনপদ বিভাগসহ প্রশাসনের সকল পর্যায়ে সমিতির পক্ষে লিখিতভাবে ঝুঁকিপূণ সেতু মেরামত ও সড়কের ঝুঁকিপূর্ণ মোড় গুলি প্রসস্তকরণসহ হুয়রছড়া মোড়ের বটগাছটি কর্তন করে প্রতিনিয়ত দুর্ঘটনা রোধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য আবেদন করা হলেও তেমন কোন ফল পাওয়া যায়নি বলে পার্বত্যনিউজকে জানান।

এদিকে ঈদে গ্রামমুখি মানুষের মাঝে শঙ্কা ও ভয় নিয়েই অতিরিক্ত যাত্রি বোঝাই যানবাহনগুলিকে চলাচল করতে হচ্ছে। দীর্ঘ ২০ বছরের বেশি দিন যাবৎ রামগড় ফেনী-ঢাকা সড়কের এই পাকা, ব্রেইলি ব্রিজ ও ঝুকিপূর্ণ মোড়গুলি সম্প্রসারণ না করায় ব্যাপক প্রাণহাণি ঘটছে, যাতে  জনমনে আতঙ্ক ও ক্ষোভ দিনদিন বৃদ্ধি পাচ্ছে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

4 × 1 =

আরও পড়ুন