রামুতে জমি জবর দখলে ভাঙচুরের অভিযোগ

fec-image

রামুতে স্বত্ব দখলীয় জমি জবর দখলে মরিয়া হয়ে উঠেছে প্রভাবশালী চক্র। জবর-দখলের উদ্দেশ্যে হামলা ও ভাঙচুর চালানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে। রামুর ফতেখাঁরকুল ইউনিয়নের মধ্যম মেরংলোয়া এলাকার এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় রামু থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন জমির মোক্তার আহমদের স্ত্রী ছমুদা খাতুন ও মৃত আবদুর রহমান মাস্টারের ছেলে মো. শাহজাহান।

থানায় দেয়া এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে-ছমুদা খাতুনের কাছ থেকে জমি ক্রয় করে শান্তিপূর্ণভাবে ভোগদখলে ছিলেন-মো. শাহজাহানের ছেলে মোর্শেদুর রহমান। সম্প্রতি এ জমিতে লোলুপ দৃষ্টি পড়ায় জমিটি জবর-দখলের চেষ্টা শুরু করে স্থানীয় ফরোখ আহমদের ছেলে আবদুর রহিম, রশিদ আহমদের ছেলে সোহেল রানা সোহেল ও কালা মুনিয়ার নেতৃত্বাধীন একটি সংঘবদ্ধ চক্র। চক্রটি গত ২০ নভেম্বর পরিকল্পিতভাবে এ জমিতে প্রবেশ করে হামলা ও ভাঙচুর চালিয়ে ক্ষয়ক্ষতি সাধন করে।

অভিযোগে আরো উল্লেখ করা হয়েছে, এ জমি জবর-দখলের চেষ্টা শুরু করলে মূল মালিক ছমুদা খাতুন ফতেখাঁরকুল ইউনিয়ন পরিষদে মামলা (নং ১৪/২০১৭) করেন। এরই প্রেক্ষিতে ইউনিয়ন পরিষদ ছমুদা খাতুনের পক্ষে ডিক্রি প্রদান করেন। এছাড়া অভিযুক্ত ব্যক্তিরা ছমুদা খাতুনের সৃজিত বিএস খতিয়ান (নং ৮৪০) এর বিরুদ্ধে আপত্তি দিলে ফতেখাঁরকুল ইউনিয়ন সহকারি ভূমি কর্মকর্তা রাশেদা আকতার সরেজমিন পরিদর্শন করে ছমুদা খাতুনের দখল ও স্বত্ত্ব মর্মে প্রতিবেদন প্রদান করেন। পরে উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) এর কার্যালয়ে বারবার শুনানী করার দিন ধার্য হলেও অভিযুক্তরা না আসায় ছমুদা খাতুনের পক্ষে ডিক্রি প্রদান করা হয়।

জমির পক্ষে কোন প্রকার যৌক্তিক দাবি-দাওয়া ছাড়াই জমির মালিক ছমুদা খাতুন ও মো. শাহজাহানকে হয়রানির ঘটনায় এলাকায় চরম ক্ষোভের সঞ্চার হয়েছে। এলাকাবাসী সুষ্ঠু প্রতিকার চেয়েছেন। এছাড়া যথাসময়ে ব্যবস্থা না নিলে এ নিয়ে অপ্রীতিকর ঘটনারও আশংকা করেছেন এলাকাবাসী। অন্যদিকে হামলাকারিদের অব্যাহত হুমকির কারণে জমির মালিকরা বর্তমানে চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। এ ব্যাপারে ভুক্তভোগীরা উপজেলা ও পুলিশ প্রশাসনের কঠোর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

four + two =

আরও পড়ুন