রামুর ঈদগড়ে ১ লাখ টাকা মুক্তিপণ নিয়ে ২ পান ব্যবসায়ীকে দিয়েছে অপহরণকারীরা

ramu pic 3.9.14

নিজস্ব প্রতিনিধি:
রামুর উপজেলার ঈদগড় ইউনিয়নের অপহৃত দুই পান ব্যবসায়িকে ১ লাখ টাকা মুক্তিপণ নিয়ে ছেড়ে দিয়েছে অপহরণকারি চক্র। অপহৃত ব্যবসায়িদ্বয় হলেন, রামু উপজেলার ঈদগড় ইউনিয়নের মো. শরীফ পাড়ার আবদুল মাবুদের ছেলে আবদুল মজিদ (৪০) ও একই ইউনিয়নের কাটাজঙ্গল এলাকার মৃত আলী আকবরের ছেলে আমির হামজা।
বুধবার (৩ সেপ্টেম্বর) ভোরে তাদের গভীর জঙ্গলে ছেড়ে দেয়া হয়। পরে তারা লোকালয়ে এলে লোকজন বিষয়টি পুলিশকে অবহিত করে।

এরআগে শনিবার (৩০ আগষ্ট) পানের বরজ দেখাশোনা করতে গেলে অপহরণকারিরা কৌশলে তাদের অপহরণ করে নিয়ে যায় এবং পরিবারের সদস্যদের কাছে মোবাইলে ফোনে ৫ লাখ টাকা মুক্তিপণ দাবী।
জানা গেছে, অপহৃত দুজনই পান ব্যবসায়ি। তাদের পানের বরজও রয়েছে। অপহৃত আবদুল মজিদের দুইভাই সৌদি আরবে রয়েছে। অপহরণকারিরা এদের পরিবারের সদস্যদের বার বার কল করে মুক্তিপণ আদায়ের চেষ্টা চালাচ্ছে।

রামু থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. সাইকুল আহম্মেদ ভূঁইয়া জানিয়েছেন, অপহৃতদের উদ্ধার করা হয়েছে। এখন অপহরণকারিদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

অপহৃত আবদুল মজিদের ছোট ভাই নুরুচ্ছাফা এবং অপহৃত আমির হামজার ছেলে শাহজাহান জানিয়েছেন, অপহরণকারিরা তার মুঠোফোনে কল করে দুজনকে ছেড়ে দেয়ার আশ্বাসে ৫ লাখ টাকা মুক্তিপণ চেয়েছে। তারা দুটি পরিবারের সদস্যরা একলাখ টাকা অপহরণকারিদের বিকাশ নাম্বারে পাঠালে তাদের ছেড়ে দেয়া হয়।

উল্লেখ্য গত ২৬ মে রামু উপজেলার ঈদগড় ইউনিয়নের ঈদগড়-বাইশারী সড়কে একটি বাস থামিয়ে শসস্ত্র অপহরণকারি চক্র ব্যাংক কর্মকর্তা, ব্যবসায়ি সহ তিনজনকে অপহরণ করে এবং পরদিন মুক্তিপণ নিয়ে তাদের ছেড়ে দিয়েছিলো অপহরণকারি চক্র।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

13 − one =

আরও পড়ুন