রাষ্ট্রীয় দিবসে সন্তু লারমা শহীদ বেদিতে শ্রদ্ধা জানাতে যান না কেন?


নিজস্ব প্রতিনিধি: এবারো মহান বিজয় দিবসে শহীদ বেদিতে শ্রদ্ধা জানাতে যাননি পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদের চেয়ারম্যান ও পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির সভাপতি জ্যোতিরিন্দ্র বোধিপ্রিয় লারমা (সন্তু লারমা)। অন্য কোনো জাতীয় দিবসেও তিনি শহীদ বেদিতে শ্রদ্ধা জানাতে যান না। কিন্তু সরকারের একজন প্রতিমন্ত্রীর মর্যাদায় অধিষ্ঠিত থেকেও তিনি কেন শহীদ বেদিতে শ্রদ্ধা জানাতে জান না- সে প্রশ্ন বিভিন্ন রাজনৈতিক দল থেকে শুরু করে সরকারের উচ্চপদস্থ ব্যক্তিসহ সকল স্তরের মানুষের মুখে মুখেই।

অনেকেই প্রশ্ন রেখে বলেন, সন্তু লারমা বাংলাদেশ সরকারের সুবিধা ভোগ করছেন, সরকারের প্রতিমন্ত্রীর মর্যাদা নিয়ে আঞ্চলিক পরিষদের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করছেন অথচ শহীদ বেদিতে ফুল দিতে, শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে তার যত সমস্যা! তিনি নিজেকে বাংলাদেশের নাগরিক দাবি করেন অথচ তিনি নিজ এলাকার ভোটার নন। তাহলে কি তিনি এদেশের স্বাধীনতায় বিশ্বাস করেন না? নাকি বাংলাদেশের ভিতর আরেকটি দেশ প্রতিষ্ঠা করার পাঁয়তারা করছেন? যদি তিনি সেই পাঁয়তারা করেই থাকেন তাহলে সরকারের পক্ষ থেকেই বা তার জন্য এত সুযোগ সুবিধা কেন?

এ বিষয়ে রাঙামাটি জেলা আ’লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জমির উদ্দীন জানান, পার্বত্য চট্টগ্রাম স্বাধীন বাংলাদেশের অংশ। সন্তু লারমা এ অঞ্চলে বসবাস করেন। তিনি সরকারের আঞ্চলিক পরিষদের চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করছেন। এখন কেউ যদি শহীদ বেদিতে শহীদদের সন্মান না জানায়, দেশের স্বাধীনতার প্রতি শ্রদ্ধা না জানায় তাহলে এ ধরনের মানুষ এদেশের নাগরিক কিনা সে প্রশ্ন তো উঠবেই।

আ’লীগের এ নেতা আরো জানান, তিনি যদি বাংলাদেশের নাগরিক হতেন, এদেশের স্বাধীনতায় বিশ্বাসী হতেন তাহলে অবশ্যই শহীদ মিনারে গিয়ে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করতেন।

সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য ফিরোজা বেগম চিনু জানান, সন্তু লারমা কেন শহীদ বেদিতে যান না, শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানান না সে প্রশ্ন সকলের মুখে মুখেই আজকাল উচ্চারিত হচ্ছে। সরকারের গুরুত্বপূর্ণ পদে থেকে তিনি রাষ্ট্রীয় অনুষ্ঠানে কেন অংশ নেন না- তিনি ছাড়া এর উত্তর কেউ দিতে পারবে না।

এ বিষয়ে জানতে জনসংহতি সমিতির (জেএসএস) সহ তথ্য ও প্রচার সম্পাদক সজিব চাকমার মুঠোফোনে একাধিকবার কল করলেও কোন সাড়া পাওয়া যায়নি।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

five × 4 =

আরও পড়ুন