রোহিঙ্গা ক্যাম্পগুলোতে চলছে আধিপত্য বিস্তারের সশস্ত্র মহড়া

fec-image

উখিয়া-টেকনাফের রোহিঙ্গা ক্যাম্পগুলো বিষফোঁড়ায় পরিণত হয়েছে। অস্ত্র, মাদক ব্যবসা, আধিপত্য বিস্তার ও ক্যাম্পের দখলদারিত্ব বজায় রাখার জন্য প্রতিদিন এভাবেই সশস্ত্র মহড়া দিয়ে থাকে রোহিঙ্গারা।

রোহিঙ্গাদের বিবদমান গ্রুপগুলোর মধ্যে প্রতিদিনই ঘটছে সংঘর্ষ, প্রাণহানির মতো ঘটনা। গতকাল রবিবারও দু’গ্রুপের সংঘর্ষে নিহত হয়েছে দু’জন। এর আগে বৃহস্পতিবারে আরসা ও মুন্ন গ্রুপের সংঘর্ষে নিহত হয় এক মহিলা।

রোহিঙ্গাদের অভ্যন্তরীণ এ বিরোধে উদ্বিগ্ন এবং আতঙ্কিত স্থানীয়রাও। এ অবস্থায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পগুলোর নিরাপত্তা ব্যবস্থা ঢেলে সাজানোর দাবি উঠেছে বিভিন্ন মহল থেকে।

স্থানীয় প্রশাসনের তথ্যমতে, গত ৩ বছরের বেশি সময় ধরে টেকনাফ এবং উখিয়ার আশ্রয় শিবিরগুলোতে খুন, ধর্ষণ, মাদক ও মানব পাচার এবং অস্ত্র ব্যবসার মতো অন্তত ১৫ রকমের অপরাধমূলক কাজের সঙ্গে জড়িয়ে পড়ছে রোহিঙ্গারা ।

বিশেষ করে মাদক ও অস্ত্র ব্যবসা নিয়ে তাদের অভ্যন্তরীন বিরোধ চরম আকার ধারণ করেছে। প্রতি রাতেই ক্যাম্পগুলোতে শোনা যায় গুলির শব্দ। প্রায় সময় ঘটে গুম, খুন, ধর্ষণ, অপহরণ ও মারামারির ঘটনা।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

16 − 3 =

আরও পড়ুন