রোহিঙ্গা ক্যাম্পের বাইরেও কঠোর অবস্থানে প্রশাসন

fec-image

করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে রোহিঙ্গা ক্যাম্পের বাইরেও বিধিনিষেধ মানাতে কঠোর অবস্থানে রয়েছে প্রশাসন। রোববার (২৩ মে) উখিয়ার বিভিন্ন জনবহুল স্থানে সচেতনতামূলক প্রচার অভিযান পরিচালনা করেছে উপজেলা প্রশাসন। তবে এ সময় কাউকে জরিমানা ও মামলা দিতে দেখা যায়নি।

এর আগে, রোহিঙ্গা ক্যাম্পে হঠাৎ সংক্রমণ ঊর্ধ্বগতি হওয়ায় শনিবার বিকালে প্রশাসনের পক্ষ থেকে পুরো উপজেলায় মাইকিং করে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে রোববার থেকে বিশেষ লকডাউন কার্যকর শুরু হবে, চলবে ৩১ মে পর্যন্ত।

উখিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার নিজাম উদ্দিন আহমেদ জানিয়েছেন, উখিয়া উপজেলায় রোববার ২৩ মে থেকে ৩১ মে রোববার পর্যন্ত কঠোর নিয়ন্ত্রণে রাখা হবে। কোভিড-১৯ বিষয়ক সরকারের সকল বিধিনিষেধ সকল পর্যায়ে মানতে বাধ্য করা হবে।

তিনি বলেন, ওষুধ ও অত্যাবশ্যকীয় দোকান ব্যতিত সন্ধ্যা ৭টার পর সব দোকানপাট বন্ধ থাকবে, কেউ বাইরের উপজেলায় আসা-যাওয়া করতে পারবে না, কক্সবাজার-টেকনাফ সড়কে সরাসরি কোন বাস চলাচল করতে পারবে না।

কঠোর নিয়ন্ত্রণ চলাকালে জরুরি ও অত্যাবশ্যকীয় কর্ম, খাদ্য, চিকিৎসা ব্যতিত এনজিও, আইএনজিও এবং ক্যাম্পে কর্মরত সংশ্লিষ্ট সকলের গাড়ি চলাচলও কঠোর নিয়ন্ত্রণের মধ্যে থাকবে। স্থানীয়রা লকডাউন চলাকালে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আসা-যাওয়া করতে পারবে না। একইভাবে কোনো রোহিঙ্গাও বাইরে আসতে পারবে না বলে জানান তিনি।

প্রসঙ্গত, সম্প্রতি রোহিঙ্গা ক্যাম্প ও উখিয়া উপজেলায় করোনা সংক্রমণ আশঙ্কাজনকভাবে বেড়ে যাওয়ায় জেলা করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধ কমিটির সিদ্ধান্তের আলোকে কঠোর নিয়ন্ত্রণের এ উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এর আগে, উখিয়ার চারটি রোহিঙ্গা ক্যাম্প লকডাউনের আওতায় আনা হয় এবং বাকি ক্যাম্পগুলোতে কঠোর নির্দেশনা দেওয়া হয়।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

2 × 2 =

আরও পড়ুন