সব ক’টি ভোটকেন্দ্র ঝুঁকিপূর্ণ

খাগড়াছড়ির পৌরসভায় র‌্যাব ও বিজিবি’র স্ট্রাইকিং ফোর্সসহ চার স্তরের নিরাপত্তা

fec-image

বৃহস্পতিবার রাত ৮টায় শেষ হচ্ছে খাগড়াছড়ি পৌরসভার প্রচার-প্রচারণা। সে সাথে নিরাপত্তা চাদরে ঢেকে যাচ্ছে পুরো শহর। খাগড়াছড়ি পৌরসভায় সব ক’টি কেন্দ্র ঝুকিপূর্ণ চিহ্নিত করে ভোটারবান্ধব পরিবেশ গড়ে তুলতে ব্যাব ও বিজিবি’র স্ট্রাইকিং ফোর্সসহ চার স্তরের বিশিষ্ট নিরাপত্তা বেষ্টনী গড়ে তোলা হচ্ছে।

দ্বিতীয় ধাপে আগামী ১৬ জানুয়ারি অনুষ্ঠিতব্য খাগড়াছড়ি পৌরসভায় ভোটার এবার ৩৭ হাজার ৮৭ জন। তার মধ্যে পুরুষ ভোটার ২০ হাজার ৩৫১ জন ও নারী ভোটার ১৬ হাজার ৭শ৩৬জন।

খাগড়াছড়ি পৌরসভায় মেয়র পদে চার,সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৪০জন ও সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে ১০জন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। তবে মেয়র পদে চার প্রার্থী হলেও মূলত: আলোচনায় আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী নির্মলেন্দু চৌধুরী, বিএনপির ইব্রাহিম খলিল ও আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী বর্তমান মেয়র মো: রফিকুল আলম।

আলোচনায় নেই গত পৌরসভা নির্বাচনে মাত্র ৯৫ ভোট পাওয়া জাতীয় পার্টির এবারের প্রার্থী ফিরোজ আহমেদ’র। তার নেই কোন প্রচারণা। এমন কি কোন পোস্টার কিংবা মাইকিং চোখে পড়েনি।

খাগড়াছড়ি সদর পৌরসভা রিটার্নিং অফিসার রাজু আহমেদ জানান, খাগড়াছড়ি পৌরসভার সব ক’টি (১৮টি) ভোট কেন্দ্রকে ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করে বাড়তি নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

প্রতিটি ভোট কেন্দ্রে একজন করে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট থাকবেন। ভোটারদের নিরাপত্তায় প্রতিটি ভোট কেন্দ্রে পর্যাপ্ত পুলিশ ও আনসার সদস্য থাকবে। পাশাপাশি স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে এক প্লাটুন ব্যাব ও দুই প্লাটুন বিজিবি থাকবে।

এদিকে খাগড়াছড়ি পৌরসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে বেশ কিছু বিধিনিষেধ জারি করেছে জেলা প্রশাসন।

খাগড়াছড়ি জেলা প্রশাসক প্রতাপ চন্দ্র বিশ্বাস স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, পৌরসভা সাধারণ নির্বাচন উপলক্ষে ভোট গ্রহণের নির্ধারিত দিনের পূর্ববর্তী মধ্যরাত (১৫ জানুয়ারি) রাত ১২টা থেকে ১৬ জানুয়ারি রাত ১২টা পর্যন্ত খাগড়াছড়ি শহরে ট্রাক ও পিকআপ ভ্যান চলাচলে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। এছাড়া ১৪ জানুয়ারি রাত ১২টা থেকে ১৭ জানুয়ারি সকাল ৬টা পর্যন্ত মোটরসাইকেল চলাচলে বন্ধ থাকবে।

তবে রিটার্নিং অফিসার কর্তৃক অনুমোদিত এজেন্ট এবং দেশি-বিদেশি পর্যবেক্ষকদের জন্য শিথিলযোগ্য। এছাড়া সাংবাদিক, নির্বাচন কাজে নিয়োজিত কর্মকর্তা-কর্মচারী, আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী, অ্যাম্বুলেন্স, ফায়ার সার্ভিস, বিদ্যুৎ, গ্যাসসহ ইত্যাদি কার্যক্রমে ব্যবহৃত যানবাহন চলাচলে নিষেধাজ্ঞা প্রযোজ্য হবে না।

খাগড়াছড়ি পৌরসভা নির্বাচনে শুরু থেকে প্রার্থীরা ভ্রাম্যমাণ আদালতে জরিমানাকে বৃদ্ধাঙ্গুল দেখিয়ে আচরণবিধি লঙ্ঘনের প্রতিযোগিতা থাকলেও কোন সহিংসতা হয়নি।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: খাগড়াছড়ি, নির্বাচন, পৌরসভা
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

eleven − 5 =

আরও পড়ুন