লংগদুতে লেকের ধারে শাবকের জন্ম, হাতির আক্রমণে যুবক আহত

fec-image

রাঙামাটির লংগদু উপজেলার ভাসান্যাদম ইউনিয়নের বড়মাঠ এলাকায় লোকালয়ে এসে নতুন শাবকের জন্ম দিয়েছে একটি বন্য হাতি। অতি উৎসাহি লোকজন হাতির শাবকটিকে এক নজর দেখতে গিয়ে পারভেজ আলম (২২) নামে এক যুবক মা হাতির আক্রমণের শিকার হয়ে গুরুতর আহত হয়েছে।

বুধবার (১৭ মার্চ) সন্ধার পর থেকেই ভাসান্যাদম ইউনিয়নের বড়মাঠ এলাকার চারপাশে হাতির উৎপাত বেড়ে যায়। সারারাত আশপাশের মানুষ জড়ো হয়ে হৈ চৈ করে হাতি তাড়ানোর চেষ্টা করে। সারারাত উদ্বেগ ও উৎকণ্ঠায় কাটিয়েছে এলাকাবাসী।

বড়মাঠ এলাকার পল্লি চিকিৎসক আশ্রাফ আলী জানান, রাত বারটার সময় ৪/৫টি বন্যহাতি তাদের বাড়িসহ আশপাশের কয়েকটি বাড়িতে আ্ক্রমন চালিয়ে বিভিন্ন ফলের গাছপালা সহ ঘর-বাড়ি ভাংচুর করে ব্যাপক ক্ষয়-ক্ষতি করে।

এভাবে রাতের আঁধার কেটে যাওয়ার পরের দিন বৃহস্পতিবার (১৮ মার্চ) ভোর হতেই একটি সু-খবর পেলো এলাকাবাসী। ভাসাইন্যাদম ইউনিয়নের বড়মাঠ এলাকার রমজান মেম্বারের বাড়ির পাশের টিলায় কাপ্তাই লেকের ধারে একটি বন্যহাতি নতুন শাবকের জন্ম দিয়েছে। সকালে হাতির বাচ্চা দেওয়ার খবর পেয়ে এলাকার লোকজন কৌতুহলী হয়ে ছুটে যেতে থাকে সদ্য ভুমিষ্ঠ হাতির শাবককে এক নজর দেখতে।

প্রত্যক্ষদর্শী ফারুক হোসেন মাস্টার জানায়, বন্যহাতিটি লেকের পানির কিনারে শাবকের জন্ম দেওয়ায় পানি থেকে তার শাবকটিকে রক্ষার জন্য প্রানপণ চেষ্টা করে অবশেষে সফল হয় মা হাতিটি। কিছুক্ষণ পর একটি দুর্ঘটনাও ঘটে। হাতি শাবক দেখার জন্য অতি উৎসাহি হয়ে এলাকার লোকজন আশপাশে বিরক্ত করতে থাকে। এ সময় ক্ষিপ্ত হয়ে মা হাতিটি হামলা করে পারভেজ আলম (২২) নামক এক যুবককে। হাতিটি তাকে ধরে আছাড় মারে। সে বড়মাঠ এলাকার হযরত আলীর ছেলে। পরে আহত অবস্থায় যুবকটিকে লংগদু স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

ভাসাইন্যাদম ইউপি চেয়ারম্যান হযরত আলী ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, বর্তমানে নতুন শাবক জন্ম দেওয়া মা হাতিটি তার শাবকটিকে পানির কিনার থেকে তুলে নিয়েছে। এখন শাবকটি একটু একটু করে হাটতে পারছে। এখনও ভাসাইন্যাদম বড়মাঠ এলাকায় নতুন শাবকের জন্ম দেওয়ায় ৪/৫টি বন্যহাতি  অবস্থান করছে।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: আহত, যুবক, শাবক
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

two × 5 =

আরও পড়ুন