লকডাউন বাস্তবায়নে উখিয়া উপজেলা প্রশাসনের কঠোর সিদ্ধান্ত: বিনা প্রয়োজনে বের হলেই জরিমানা

fec-image

কোভিড-১৯ বিস্তার রোধে ১৪ এপ্রিল থেকে ২১ এপ্রিল পর্যন্ত এক সপ্তাহের লকডাউন বাস্তবায়ন করতে উখিয়া উপজেলা প্রশাসনের জরুরী বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৩ এপ্রিল) বিকেল ৩টায় উখিয়া উপজেলা পরিষদ হলরুমে এই সভা অনুষ্ঠিত হয়।

বৈঠকে কঠোর লকডাউন বাস্তবায়নে উখিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার নিজাম উদ্দিন আহমেদ বলেন, লকডাউন চলাকালীন সময়ে সরকার ঘোষিত নীতিমালা বাস্তবায়নে সকলকে সতর্ক থাকতে হবে। সরকারি নির্দেশনা অমান্যকারীকে জরিমানা ও শাস্তির আওতায় আনা হবে। উপজেলা প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনী সার্বক্ষণিক মাঠে থাকবে। লকডাউন কার্যকর করার জন্য জনপ্রতিনিধি, ব্যবসায়ী, সাংবাদিক এবং সকল পেশাজীবীদের গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখার জন্য আহ্বান জানান। স্বাস্থ্যবিধি মেনে সকলকে মাস্ক ব্যবহার নিশ্চিত করতে হবে।

তিনি এসময় বলেন, ধর্ম মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা অনুযায়ী রমযানে তারাবির নামাজসহ ৫ ওয়াক্ত নামাজ আদায়ে ২০ জনের অধিক মুসল্লী না থাকার জন্য ইসলামি ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে প্রতিটি মসজিদের ইমামদের বলে দেওয়া হয়।

প্রয়োজনে করোনা সংক্রমন রোধে উখিয়ার ব্যস্ততম কাঁচা বাজার ও মাছ বাজারগুলো অন্যত্র সরিয়ে নেওয়ার জন্য সিদ্ধান্ত হয় বৈঠকে।

সভায় বক্তব্য রাখেন, সহকারী কমিশনার (ভূমি) আমিমুম এহসান খান, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার ডা. রঞ্জন বড়ুয়া রাজন, রাজা পালং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী, উপজেলা নির্বাহী প্রকৌশলী রবিউল ইসলাম, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা প্রসেনজিৎ তালুকদার, পালংখালী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এম গফুর উদ্দিন চৌধুরী।

সভায় ব্যবসায়ী, রাজনীতিবীদ, সুশীল সমাজ, সাংবাদিক, প্রশাসন, পরিবহণ নেতাসহ সর্বস্তরের লোকজন উপস্থিত ছিলেন।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: উখিয়া, উপজেলা প্রশাসন, জরিমানা
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

four + 9 =

আরও পড়ুন