লক্ষ্মীছড়িতে ছুরির আঘাতে আহত সেই পুলিশ সদস্য চিকিৎসা শেষে নিজ কর্মস্থলে ফিরলেন

ফলোআপ

স্টাফ রিপোর্টার: খাগড়াছড়ি জেলার লক্ষ্মীছড়ি থানায় গত ৫ জানুয়ারি পুলিশ সদস্য মো. ফারুক হোসেন এর ছুরির আঘাতে আহত অপর পুলিশ সদস্য মংজয় চাক চট্টগ্রাম সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) এক মাস ১২ দিন উন্নত চিকিৎসা শেষে বুধবার লক্ষ্মীছড়ি থানায় নিজ কর্মস্থলে যোগ দিয়েছেন। সেনাবাহিনীর বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের নিবিড় পর্যবেক্ষণ শেষে স্বাভাবিক চলাফেরা ও সুস্থ অনুভব করায় তাকে ১৩ ফেব্রুয়ারি সকালে রিলিজ করেন হাসপাতাল কতৃপক্ষ।

রিলিজ হওয়ার পর রাঙ্গাামাটি নিজ বাড়িতে ৩ দিন ছুটি ভোগ করে বুধবার লক্ষ্মীছড়ি থানায় কর্মস্থলে আসেন। বৃহস্পতিবার সকালে তাঁর জেলা পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে হাজির হওয়ার কথা রয়েছে। গতকাল বুধবার সন্ধায় এ প্রতিনিধির সাথে সাক্ষাত হলে তিনি লক্ষ্মীছড়ি বাসীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। ঘটনার পর সে আর কিছুই বলতে পারে নি। জ্ঞান ফেরার পর সে জানতে পারে জীবন ফিরে পাবার কাহিনী। বিশেষ করে সেনাবাহিনীর হেলিকপ্টার দিয়ে দ্রুত চট্টগ্রাম নিয়ে চিকিৎসা নেয়ার সুযোগ করে দেয়ার জন্য লক্ষ্মীছড়ি জোন কমান্ডার লে. কর্ণেল মুহম্মদ নুরুল আমিন এর অবদান কখনো ভুলবেন না বলে প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেন। পুলিশ অফিসার, সহকর্মী, স্থানীয় জনগণ, সাংবাদিকসহ সুস্থতা কামনা করে যারা দোয়া ও আর্শিবাদ করেছেন সবার প্রতি মংজয় চাকমা কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

উল্লেখ্য, গত ৫ জানুয়ারি দুপুরে কেউ কিছু বুঝে ওঠার আগেই পুলিশ সদস্য ফারুক হোসেন হাতের পেছনে লুকিয়ে রাখা ছুরি দিয়ে এলোপাতারি কোপাতে থাকে তারাই সহকর্মী মংজয় চাককে। মারাত্মক জখম অবস্থায় প্রথমে স্থানীয় হাসপাতাল এবং পরে সেনাবাহিনীর সহায়তায় চট্টগ্রাম সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে হেলিকপ্টার যোগে দ্রুত প্রেরণ করা হয়। পুলিশ সদস্য ফারুক এর বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা রুজু করা হয় এবং সে বর্তমানে জেল হাজতে রয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

6 − three =

আরও পড়ুন