লামায় প্রতিবন্ধী কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগে কিশোর গ্রেফতার

fec-image

বান্দরবানের লামায় ১৫ বছরের বাকপ্রতিবন্ধী এক কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এই ঘটনায় প্রতিবন্ধী কিশোরীর মা বাদী হয়ে লামা থানায় একটি এজাহার দায়ের করেছে। অভিযান চালিয়ে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে লামা থানা পুলিশ।

অভিযুক্ত তানভির (২১) লামা পৌরসভার ৪ নং ওয়ার্ডের নারকাটা ঝিরি এলাকার আব্দুস ছাত্তারের ছেলে।

শনিবার (৩ আগস্ট) বিকেলে লামা পৌরসভা এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

এজাহার সূত্রে জানা যায়, বাক প্রতিবন্ধী কিশোরী ও তার মা আব্দুস ছাত্তারের বাড়িতে ভাড়া থাকে। বাক প্রতিবন্ধী কিশোরীর মা স্বামী পরিত্যক্তা হওয়ায় মানুষের বাড়ি বাড়ি গিয়ে কাজ করে। প্রতিদিনের মতো বৃহস্পতিবার (১ সেপ্টেম্বর) সকাল ১০টার দিকে কাজে যাওয়ার সময় জমিদারের ছেলে আসামি তানভিরকে খালি একটা গ্যাসের সিলিন্ডার ১০ টাকার বিনিময়ে প্রতিবন্ধী কিশোরীর মায়ের ঘরে রেখে আসতে বলে।

সেই সুবাদে প্রতিবন্ধী কিশোরীকে ঘরে একা পেয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে এবং কাউকে না বলার জন্য বিভিন্নভাবে হুমকি ধামকি দিয়ে যায়।

পরে কিশোরীর মা বাড়িতে আসলে কিশোরী ঘটনা মাকে খুলে বলে এবং কিশোরীর মা যখন ঘটনাটি আসামির বাবাকে জানায় তখন বাবা থানায় মামলা না করার জন্য হুমকি দেয়। তাদেরকে বাসা থেকে বের করে দিবে, মারধর করবে এবং উল্টা অভিযোগ দিয়ে হয়রানির হুমকিও দেয়।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে লামা থানার অফিসার ইনচার্জ (তদন্ত) শিবেন বিশ্বাস জানান, আমরা মামলার এজাহার নিয়েছি এবং আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সে থানা হেফাজতে রয়েছে। প্রতিবন্ধী কিশোরীকে আগামীকাল মেডিকেল রিপোর্টের জন্য জেলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হবে।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: আটক, ধর্ষণ, লামা
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

9 − six =

আরও পড়ুন