শীতকালীন সবজি চাষে সফল কৃষক নুরুল আজিম মেম্বার

fec-image

বান্দরবানের নাইক্ষংছড়ি উপজেলার বাইশারী ইউনিয়নের হলদ্যাশিয়া গ্রামের বাসিন্দা বর্তমান ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বার মো. নুরুল আজিম। তিনি একজন সফল কৃষক।

জনসেবার পাশাপাশি কৃষি কাজেও তার রয়েছে বিরাট সফলতা। বর্ষা মৌসুমে ও শুকনো মৌসুমে ধান চাষের পাশাপাশি শীতকালীন সবজি আবাদে ব্যস্ত সময় পার করছেন তিনি।

সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় প্রায় দুই একর জমিতে শীতকালীন সবজি চাষ করেছেন।শীতকালীন সবজির মধ্যে রয়েছে মুলা, বেগুন, তীত করলা, আলু, মিষ্টি কুমড়া, ভুট্টাসহ নানান ধরনের সবজির আবাদ । প্রতিটি সবজির গাছ এখন সবুজে সবুজে ভরপুর হয়ে উঠেছে।

নুরুল আজিম মেম্বার জানান তিনি একজন কৃষক। আগে থেকেই কৃষি কাজ করতেন।
বর্ষা মৌসুমে ও শুকনো মৌসুমে ব্যোরো-আমন ধান চাষ করেন। তাছাড়া প্রতি বছর শীতকালীন সবজি চাষ করে থাকেন। তাই এবছরও ২ একর জমি বর্গা নিয়ে চাষাবাদ করেছেন। এপর্যন্ত ১ লাখ টাকা তার খরচ হয়েছে। আবহাওয়া অনুকূলে থাকলে এই মৌসুমে ৫ লাখ টাকা আয় হবে বলে আশা করছেন।

স্থানীয় বাসিন্দা মুফিজুর রহমান জানান জনসেবায় তার যেমন সুনাম রয়েছ। কৃষি কাজে ও তার রয়েছে সফলতা।

ইউপি মেম্বার নুরুল আজিম জানান, বাইশারীতে সবচয়ে বেশি ধান চাষ করেন তিনি।
নিজের একখণ্ড জমিও নাই। সবই মানুষের জমি বর্গা নিয়ে চাষাবাদ করে থাকেন। মানুষের পাওনা দিয়ে বাকী টাকা দিয়ে সংসার ভালই চলছে।

তবে তিনি কৃষক হিসেবে সরকারের পক্ষ থেকে কোন সহযোগিতা পাননি। কৃষি অফিসার তার ক্ষেত পরিদর্শন করে থাকেন এবং পরামর্শও দেন। কৃষি অফিসারদের পরামর্শ অনুযায়ী সময়মত সার কিট নাশক দিয়ে থাকেন।

উপসহকারী কৃষি অফিসার শহিদুল্লাহ জানান, ইউপি মেম্বার নুরুল আজিম মেম্বারের ধান ক্ষেত ও সবজি ক্ষেত পরিদর্শন করা হয়েছে। সময়মত কিট নাশক ও সার প্রয়োগের পরামর্শ প্রদান করা হয়েছে।

স্থানীয় সার ও কিট নাশক ব্যবসয়ী আবদুল করিম বান্টু জানান, আজিম মেম্বার একজন সফল জনপ্রতিনিধি ও এই এলাকার সফল কৃষকের মধ্যে একজন। তার জন্য সরকারি সহযোগিতা প্রয়োজন। সরকারি সহযোগিতা পেলে তিনি আরও ভালো ফসল ফলিয়ে দেশ ও জাতির কল্যাণ করতে সক্ষম হবে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

20 − 9 =

আরও পড়ুন