শ্রদ্ধার ফুলে মাটিরাঙ্গায় জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের স্মরণ

fec-image

স্বাধীনতার ৫০ বছর পুর্তিতে জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তানদের প্রতি শ্রদ্ধার ফুল নিবেদন করে তাদের স্মরণ করেছে পাহাড়ি জেলা খাগড়াছড়ির মাটিরাঙ্গা সর্বস্তরের মানুষ।

শুক্রবার (২৬ মার্চ) ভোর ৬টা ১মিনিটে ৩১ বার তোপধ্বনির পরে মুক্তিযুদ্ধের বীর শহীদদের স্মরণে মাটিরাঙ্গা উপজেলা পরিষদ চত্বরে নির্মিত “স্বাধীনতা সোপানে” পুষ্পমাল্য অর্পণের মধ্য দিয়ে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবসের শুভ সূচনা করা হয়।

মাটিরাঙ্গা উপজেলা প্রশাসনের শীর্ষ কর্মকর্তাদের সাথে নিয়ে স্বাধীনতা সোপানে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন মাটিরাঙ্গা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. রফিকুল ইসলাম ও মাটিরাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মিজ তৃলা দেব। এর পরপরই মাটিরাঙ্গা উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ নেতৃবৃন্দকে সাথে নিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন করেন মাটিরাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মিজ তৃলা দেব। এরপর সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মো. খোরশেদ আলম, মাটিরাঙ্গা থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মুহাম্মদ আলী ‘স্বাধীনতা সোপানে’ পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন।

শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে তারা মহান স্বাধীনতাযুদ্ধের বীর শহীদদের স্মরণে এক মিনিট নীরবতা পালন করেন। এ সময় বিউগলে বাজানো হয় করুণ সুর।

এর পরপরই সর্বস্তরের জনসাধারনের জন্য স্বাধীনতা সোপান উন্মুক্ত করে দেয়া হয়। এ সময় সর্বস্তরের শ্রদ্ধায় স্বাধীনতা সোপানের পুরো চত্বর ফুলে ফুলে ভরে উঠে। স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তীর আনন্দে যেন আন্দোলিত সবাই।

এছাড়া মাটিরাঙ্গা উপজেলা ও পৌর আওয়ামী লীগ এবং সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ, মাটিরাঙ্গা উপজেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটি, মাটিরাঙ্গা কাঠ ব্যবসায়ী সমিতি, মাটিরাঙ্গা সদর ইউনিয়ন পরিষদ, সামাজিক সংগঠন বন্ধু জুনিয়র ছাড়াও বিভিন্ন রাজনৈতিক দল, সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠান, সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন, এনজিও প্রতিষ্ঠান স্বাধীনতা সোপানে শ্রদ্ধার ফুল নিবেদন করেন।

এরপর সকাল সাড়ে ৮টায় মাটিরাঙ্গা মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে আনুষ্ঠানিকভাবে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন মাটিরাঙ্গা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মো. রফিকুল ইসলাম।

এ সময় মাটিরাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মিজ তৃলা দেব ও মাটিরাঙ্গা থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মুহাম্মদ আলী তাঁর সাথে ছিলেন।

এরপর শান্তির প্রতীক পায়রা উড়িয়ে স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবসের দিনব্যাপী কর্মসূচির আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়। এরপর মার্চপাস্ট কর্মসূচিতে অংশগ্রহণকারীদের সালাম গ্রহণ করেন তারা। মার্চপাস্টে বাংলাদেশ পুলিশের একটি চৌকষদল ছাড়াও আনসার-ভিডিপি, স্কাউটস সদস্যরা অংশগ্রহণ করে।

দিবসটি উপলক্ষে মাটিরাঙ্গা উপজেলা পরিষদ অডিটোরিয়ামে আলোচনা সভা, বীর মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের দস্যদের সংবর্ধনা, সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান, বিভিন্ন ধর্মীয় উপাসনালয়ে প্রার্থনা ও প্রামাণ্যচিত্র প্রদর্শন ছাড়াও দিনব্যাপী বিভিন্ন অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

2 × 3 =

আরও পড়ুন