বান্দরবানে নাগরিক পরিষদের প্রতিবাদ সমাবেশ

সন্তু লারমা ভারত গিয়ে বাংলাদেশের সার্বভৌমত্ব ধ্বংস করার ষড়যন্ত্র করছে

fec-image

স্বয়ং সম্পূর্ণ স্বাধীন বাংলাদেশে সংবিধান থাকার পরও সন্তু লারমার জুম্ম ল্যান্ড প্রতিষ্ঠার রূপরেখা প্রশ্নবিদ্ধ। এই ষড়যন্ত্রের জন্য সরকার কেন রাষ্ট্রদ্রোহী মামলা করছেনা প্রশ্ন রাখেন নেতৃবৃন্দ। স্বাধীন দেশে জুম্ম ল্যান্ড প্রতিষ্ঠা কখনো সফল হতে দিবে না নাগরিক পরিষদ।

সোমবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) বান্দরবান প্রেসক্লাবের সামনে সমাবেশে এসব কথা বলেন পার্বত্য চট্টগ্রাম নাগরিক পরিষদের নেতারা।

শনিবার বান্দরবান সদর উপজেলার জামছড়িতে সন্ত্রাসীদের ব্রাশ ফায়ারে হতাহতের ঘটনা ও পাহাড়ে সন্ত্রাসের প্রতিবাদে এই সমাবেশের আয়োজন করা হয়।

প্রতিবাদ সমাবেশে কেন্দ্রীয় কমিটির সিনিয়র সহ-সভাপতি কাজী মজিবুর রহমান বলেন- সন্তু লারমা ভারতে গিয়ে বাংলাদেশের সার্বভৌমত্বকে ধ্বংস করার জন্য ষড়যন্ত্র করছে।

প্রতিবেশী দেশ বন্ধু হতে পারে, কখনো প্রভূ নয়। কিন্তু সন্তু লারমা ভারত, মিয়ানমার, চীনে ধর্না দিয়ে বাংলাদেশের সার্বভৌমত্বকে নসাৎ করার ষড়যন্ত্র করছে।

তিনি বলেন- বাংলাদেশের লাল সবুজের পতাকা উড়িয়ে জুম্ম ল্যান্ডের স্বপ্ন দেখছে সন্তু লারমা। আর বিদেশের মাটিতে গিয়ে নিজেকে জুম্ম ল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রীর পরিচয় দিচ্ছেন।

তিনি আরো বলেন- ১১সম্প্রদায়ের মানুষ নিয়ে সম্প্রীতির বান্দরবান। উন্নয়ন, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, যোগাযোগ, আলোর পরিবর্তন করেছেন পার্বত্যমন্ত্রী।

হাজার কোটি টাকার উন্নয়ন করেছেন তিনি। আজকে বান্দরবানকে অশান্তি কারা করছে! রক্ত কারা ঝরাচ্ছে। কারা খুন করছে তা খতিয়ে দেখতে হবে। এসময় তিনি পাহাড় থেকে সরিয়ে নেওয়া সেনাক্যাম্প গুলো পুন: প্রতিষ্ঠার দাবী জানান।

পার্বত্য চট্টগ্রাম নাগরিক পরিষদের সহ-সভাপতি ক্যাপ্টের তারু মিয়ার সভাপতিত্বে প্রতিবাদ সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন পার্বত্য চট্টগ্রাম নাগরিক পরিষদের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক ও বাঘাইছড়ির সাবেক পৌর মেয়র মো: আলমগীর কবির, কাজী মোঃ নাছির উল আলম প্রমুখ।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: চীন, নাগরিক পরিষদ, ভারত
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

14 − 3 =

আরও পড়ুন