সাজেকে কমেনি হামের প্রকোপ! নতুন আক্রান্ত শতাধিক

fec-image

রাঙ্গামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলার দুর্গম সাজেকে কমেনি হামের প্রকোপ। নতুন করে সাজেকের দুর্গম ও প্রত্যন্ত এলাকায় আরো একশ জনের বেশি হামে আক্রান্ত হয়েছে। স্থানীয় কার্বারী (পাড়া প্রধান), বেসরকারি চিকিৎসক এবং জনপ্রতিনিধিদের কাছ থেকে প্রতিনিয়তই এমন খবর মিলছে।

মঙ্গলবার ও বুধবার (২৯ এপ্রিল) সরেজমিনে সাজেক ইউনিয়নের শিজকছড়া, হাউজপাড়া, সুরুংনালা, মাচলং, উজোবাজার এবং ভূইয়োছড়ি ঘুরে কমপক্ষে ৩৫টি দরিদ্র পরিবারের শিশুকে হামে আক্রান্ত দেখা গেছে।

সাজেক ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান নেলশন চাকমা বলেন, সাজেক এলাকায় নতুন করে গত এক সপ্তাহে মাচলংয়ে ৬৪ জন, সুরুনং নালায় ২৮ জন, গঙ্গারাম ও ভাইবোন ছড়ায় ৭ জন আক্রান্ত হয়েছে।

ইতোমধ্যে উপজেলা প্রশাসন ও স্থানীয় আইন-শৃখলা বাহিনীকে আক্রান্তদের তালিকা দেয়া হয়েছে। তাদের চিকৎসাও চলছে।

ইউপি চেয়ারম্যান নেলশন চাকমা আরো জানান, দুর্গম এলাকায় ৯ শিশুর মৃত্যুর খবর পেয়ে সবার আগে সেনাবাহিনী সর্বোচ্চ সহযোগিতা নিয়ে এগিয়ে এসেছে। পাশাপাশি অনেক এলাকায় বিজিবিও সহযোগিতা প্রদান করেছে। এই দুই প্রতিষ্ঠান এগিয়ে না আসলে পরিস্থিতি আরো খারপা হতে পারতো।

বাঘাইছড়ি উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. ইফতেখার আহম্মমদ বলেন, নতুন করে হামে আক্রান্তের খবর পেয়ে আজ বৃহস্প্রতিবার(৩০ এপ্রিল) বাঘাইহাট সুরংনালা এলাকায় আমি‘সহ একটি মেডিকেল টিম পরিদর্শনে যায় এবং সেখানে নতুন করে ১২জন হাম আক্রান রোগী পাওয়া যায়। এর আগে ১৬জন ওই এলাকায় হাম আক্রান্ত হয়। সবাইকে চিকিৎসা সেবা দেওয়া হয়েছে এবং মাঠে আমাদের স্বাস্থ্য কর্মীরা নিরবিচ্ছিন্নভাবে কাজ করছেন।

প্রসঙ্গত ফেব্রুয়ারি মাসের মাঝামাঝি থেকে সাজেক ইউনিয়ন এলাকায় হামের প্রার্দূভাব দেখা দেয়। এতে ৯ শিশু হামে আক্রান্ত হয়ে মারা যায়। তখন আক্রান্ত হয়েছিলে বয়স্ক ও শিশুসহ দু‘শতাধিক। এখন চলতি মাসের শেষদিক থেকে আবারো নতুন করে আক্রান্তের খবর মিলছে।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: বিজিবি, সাজেক, সেনাবাহিনী
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

1 × 5 =

আরও পড়ুন