সীমান্তে স্বল্পমেয়াদি অনুমতিপত্র চালুর পরিকল্পনা হচ্ছে: বিজিবির ডিজি

fec-image

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) মহাপরিচালক (ডিজি) মেজর জেনারেল শাফিনুল ইসলাম বলেছেন, সীমান্ত হত্যা ও অনুপ্রবেশ ঠেকাতে নতুন নতুন উদ্যোগ নিচ্ছে বিজিবি ও বাংলাদেশ সরকার। ভারত-বাংলাদেশ সীমান্ত এলাকার মানুষের জন্য পাসপোর্ট-ভিসার স্থলে স্বল্পমেয়াদি অনুমতিপত্র চালুর পরিকল্পনা করা হচ্ছে। ইতিমধ্যে বিএসএফ ও ভারত সরকারকে এই প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে।

গতকাল সোমবার দুপুরে নওগাঁর মহাদেবপুর উপজেলার খাজুর এলাকায় বিজিবির শীতকালীন মহড়া পরিদর্শনে গিয়ে সাংবাদিকদের বিজিবির ডিজি এই কথা বলেন।

মেজর জেনারেল শাফিনুল ইসলাম বলেন, সীমান্তে হত্যাকাণ্ড কোনোভাবেই কাম্য নয়। অনেক সময় সীমান্তে পরিস্থিতির শিকার হয়ে নিরপরাধ মানুষও হত্যাকাণ্ডের শিকার হয়ে থাকতে পারেন। এ ধরনের অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা এড়াতে বিজিবি ও বাংলাদেশ সরকার নানা উদ্যোগ নিচ্ছে।

বিজিবির ডিজি বলেন, বাংলাদেশ-ভারতের যেসব এলাকায় সীমান্ত রয়েছে, ওই সব এলাকায় অনেকের আত্মীয়স্বজন বসবাস করেন। ফলে বিভিন্ন উৎসব-পার্বণ কিংবা অতি জরুরি প্রয়োজনে তাঁদের যাতায়াত আদিকাল থেকে চলে আসছে। কিন্তু এখন সীমানা হয়েছে। পাসপোর্ট-ভিসার প্রয়োজন হয়। ফলে ভিসা ছাড়া কেউ এক দেশ থেকে আরেক দেশের সীমানায় ঢুকলে অনুপ্রবেশকারী হিসেবে বিবেচিত হচ্ছেন। এসব বিষয় বিজিবি যাচাই-বাছাই করছে। ভিসার বদলে যদি স্বল্পমেয়াদি অনুমতিপত্র চালু করা যায়, তাহলে অনুপ্রবেশ ও সীমান্ত হত্যাকাণ্ড অনেকটাই রোধ করা সম্ভব।

সূত্র: প্রথম আলো

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

two + 18 =

আরও পড়ুন