সেন্টমার্টিন দ্বীপের প্রায় দুই কিলোমিটার সৈকতে পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতা অভিযান

fec-image

কক্সবাজারের সেন্টমার্টিন দ্বীপের প্রায় দুই কিলোমিটার সৈকতে পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতা অভিযান কর্মসূচি পালন করেছে পরিবেশ বিষয়ক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘এনভায়রনমেন্ট পিপল’।

সোমবার (২৭ জানুয়ারি) বিকালে দ্বীপের পশ্চিমপাড়া সৈকত থেকে শুরু করে পূর্বপাড়া সৈকতের জেটিঘাটে গিয়ে কর্মসূচি শেষ হয়। দুই কিলোমিটার সৈকতে নাইলন ও প্লাস্টিকজাত চিপস প্যাকেট, আচারের প্যাকেট, পলিথিন, ক্যান, চায়ের কাপ, বোতল, পানির বোতল, পানির গ্লাস, প্লেট, ডাবের পানি খাওয়ার স্ট্র, খাবার প্যাকেট, ভাঙ্গা চশমা বা কাঠি, মাছ ধরার জালের টুকরো, নাইলন দড়ির টুকরোসহ বিভিন্ন অপচনশীল বর্জ্যের পাশাপাশি ডাবের খোসাসহ বিভিন্ন বর্জ্য পাওয়া যায়।

এর আগে বেলা ১১টায় সেন্টমার্টিনগামী লঞ্চে ও দুপুর ১টায় সেন্টমার্টিন দ্বীপের জেটিতে পর্যটকদের মধ্যে দ্বীপ রক্ষায় করণীয় শীর্ষক সচেতনতামূলক কর্মসূচি পালন করা হয়। এসময় ২০০০ পর্যটকের মাঝে সচেতনতামূলক লিপলেট বিতরণ করা হয়েছে। কর্মসূচীতে সংগঠনটির ৪৫ জন স্বেচ্ছাসেবী অংশ নেয়।

কর্মসূচীতে থাকা সংগঠনটির প্রধান নির্বাহী রাশেদুল মজিদ বলেন, ‘দূষণের কারণে দেশের একমাত্র প্রবাল দ্বীপ সেন্টমার্টিন এখন হুমকিতে। পর্যটক ও স্থানীয়দের মধ্যে সচেতনতা তৈরি করতে বেশ কিছু কর্মসূচি নিয়ে আমরা দ্বীপটিতে এসেছি। সংগৃহীত অপচনশীল বর্জ্য দ্বীপ থেকে টেকনাফে ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়া হবে।’ দ্বীপটি বাঁচাতে একটি সুস্পষ্ট নীতিমালা ও নিয়ন্ত্রিত পর্যটনের দাবীও জানান সংগঠনটির প্রধান নির্বাহী।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: সেন্টমার্টিন, সৈকতে পরিস্কার-পরিচ্ছন্নতা
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

nineteen + seventeen =

আরও পড়ুন