সোডিয়াম ক্লোরাইড আমদানী নিষিদ্ধ ও লবণ বোর্ড গঠনের দাবি ব্যবসায়ীদের

fec-image

লবণ শিল্পের স্বার্থে স্থানীয় পর্যায়ে লবণ বোর্ড গঠন ও সোডিয়াম ক্লোরাইড আমদানী নিষিদ্ধ করার দাবি তুলেছে কক্সবাজারের ব্যবসায়ীরা। এজন্য সরকারি পর্যায়ে লবণ ক্রয় এবং বছর ভিত্তিক সু-নির্দিষ্ট লবণের চাহিদা নিরুপনের কথা বলেছেন তারা।

কক্সবাজার জেলার শীর্ষ বাণিজ্য সংগঠন কক্সবাজার চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি’র উদ্যোগে “কোভিড-১৯ মহামারীকালে টেকসই বাণিজ্য চিন্তা এবং উত্তরণের উপায়” বিষয়ক মতবিনিময় সভায় এসব বিষয়ে আলোচনা হয়েছে।

শনিবার (২১ নভেম্বর) সন্ধ্যা ৭টায় স্থানীয় ব্যবসায়িদের নিয়ে শহরের কলাতলী হোটেল মোটেল জোনের একটি অভিজাত হোটেলের সম্মেলন কক্ষে সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. মুহাম্মদ জাফর উদ্দিন।

কক্সবাজার চেম্বার অফ কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির সভাপতি আবু মোরশেদ চৌধুরীর সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় লকডাউন সময়কালের ব্যবসায়ীদের সার্বিক পরিস্থিতি এবং ভোক্তার সেবা বিষয়ক আলোচনার পাশাপাশি চেম্বারের সার্বিক কার্যক্রম সম্পর্কে প্রধান অতিথিসহ স্থানীয় ব্যবসায়ী মহলকে অবহিত করা হয়।

উক্ত মতবিনিময় সভায় গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের প্রধানমন্ত্রীর আন্তরিক প্রচেষ্টায় কক্সবাজারকে ঘিরে অর্থনৈতিক কর্মযজ্ঞকে গতিশীল এবং বিভিন্ন সেক্টরের স্থানীয় ব্যবসায়ীদের নিরবিচ্ছিন্ন ব্যবসায়িক কার্যক্রম পরিচালনার স্বার্থে প্রধান অতিথির দৃষ্টি আকর্ষন করে ব্যবসায়ী মহল এবং চেম্বারের পক্ষ থেকে কিছু সুনির্দিষ্ট প্রস্তাবনা পেশ করা হয়।

কক্সবাজার চেম্বার অফ কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি র পরিচালক আবিদ আহসান সাগরের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সভায় আরও যেসব বিষয়ে আলোচনা হয়েছে তা হলো- হ্যাচারী শিল্পের আমদানীর ক্ষেত্রে জটিলতা নিরসন, মেরিনড্রাইভের বিভিন্ন পয়েন্টে পর্যটন স্পট স্থাপন, উন্নতমানের শুটকি উৎপাদনে ডিউটি ফ্রি মেশিন এবং যন্ত্রাংশ আমদানীর সুযোগ সৃষ্টি করা শতভাগ পর্যটন সেবায় নিয়োজিত ট্যুর অপারেটর এবং হোটেলগুলোর উপর আমদানী শুল্ক মওকুফ করা, ট্যুর অপারেটর নীতিমালা প্রনয়ন, কাকড়া শিল্পের উন্নয়নের লক্ষ্যে সরকারি পর্যায়ের পৃষ্ঠপোষকতা, নারী উদ্যোক্তাদের সমন্বয়ে জেলায় মহিলা চেম্বার স্থাপন করা, কক্সবাজার ভিত্তিক ই-কমার্সের সাথে সম্পৃক্ত যুব সমাজের দক্ষতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করা, কক্সবাজার ভিত্তিক পর্যটন সংশ্লিষ্ট কারিগরী প্রশিক্ষণ সেন্টার স্থাপন, করোনায় ক্ষতিগ্রস্থ ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পের জন্য বিশেষ প্রণোদনা, বাণিজ্য/ আন্তর্জাতিক মেলা সংক্রান্ত, সেন্টমার্টিনে বাণিজ্যিক ভিত্তিক কোম্পানী গুলোকে চেম্বারের তথ্যবধানে নিয়ে আসা, কক্সবাজার চেম্বারের অধীনে সার্টিফিকেট অফ অরিজিন প্রদান করার ব্যবস্থা গ্রহণ করা, টেকনাফ স্থলবন্দরকে গতিশীল করার লক্ষ্যে জয়েন্ট বর্ডার ট্রেড পুনরায় চালু করা, কক্সবাজার শহরে কক্সবাজার ট্রেড সেন্টার নির্মাণ করা ও কক্সবাজার চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিকে “এ” ক্যাটগরীতে উন্নীত করা। এসব বিষয়ে বহুমাত্রিক পর্যটন শিল্প বিকাশে মন্ত্রণালয়ের সার্বিক সহযোগিতা প্রদানের আহবান করা হয়।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) প্রসুন কুমার চক্রবর্তী। কক্সবাজার চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি’র সাথে সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন ব্যবসায়িক সেক্টরের প্রতিনিধিবৃন্দ উপস্থিত থেকে মূল্যবান বক্তব্য প্রদান করেন।

কক্সবাজার রেস্তোরাঁ মালিক সমিতির সভাপতি নঈমুল হক চৌধুরী টুটুল, ফেডারেশন অব ট্যুরিজম সার্ভিস এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ এর সহ-সভাপতি রাজা শাহ আলম চৌধুরী, হোটেল মোটেল গেস্ট হাউজ মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আবুল কাশেম, শ্রীম্প হ্যাচারি এসোসিয়েশনের সদস্য সচিব মোহাম্মদ নজিবুল ইসলাম, কাকড়া উৎপাদন এসোসিয়েশনের প্রতিনিধি ইশতিয়াক আহমদ জয়, লবণ মিল মালিক সমিতির সভাপতি শামসুল আলম আজাদ, নারী উদ্যোক্তা জাহানারা ইসলাম, ওশান প্যারাডাইসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মিসু, কক্সবাজার বাস মিনি বাস মালিক সমিতির সভাপতি ইকবাল হুদা টাইটেল, কক্সবাজার দোকান মালিক সমিতি ফেডারেশনের সভাপতি মোস্তাক আহমদ, কক্সবাজার অনলাইন ব্যবসায়িক ফোরাম কক্সবাজার ইয়ূথ এন্টারপ্রেনার ক্লাব প্রতিনিধি আইরিন সুলতানা, ট্যুর অপারেটরস ওনার্স এসোসিয়েশন (টুয়াক) সভাপতি রেজাউল করিম, কক্সবাজার শুটকি উৎপাদনকারী সমিতির সভাপতি জয়নাল আবেদীন, কক্সবাজার চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রি’র পরিচালক নুরুজ্জামান, আজমল হুদা, মেজবাহ উল্লাহ ভুট্টো, সুপ্ত ভুশন বড়ুয়া, এইচ.এম নুরুল আলম, এ.আর.এম শহিদুল ইসলাম রাসেলসহ উপস্থিত ব্যবসায়িক প্রতিনিধিবৃন্দ মূল্যবান বক্তব্য রাখেন।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: কক্সবাজার, কোভিড-১৯, চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রি
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

12 + ten =

আরও পড়ুন