স্ত্রী-সন্তানসহ দুদকের মুখোমুখি এমপি জাফর

fec-image

স্থাবর-অস্থাবর সম্পদের বিষয়ে নিজের স্ত্রী-সন্তানসহ দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) এর জিজ্ঞাসাবাদের মুখোমুখি হয়েছেন কক্সবাজার-১ (চকরিয়া-পেকুয়া) আসনের সংসদ সদস্য ও চকরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জাফর আলম।

মঙ্গলবার (২০ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১২টা থেকে প্রায় দুই ঘণ্টা ধরে তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন দুদকের সমন্বিত কক্সবাজার জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো. রিয়াজ উদ্দিন।

তবে কি বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে এবং অভিযুক্তরা কি উত্তর দিয়েছেন তাঁর বিস্তারিত তথ্য জানা যায়নি।
দুদক কার্যালয় থেকে বের হওয়ার পথে এমপি জাফর এতটুকু বলেছেন, “শাক দিয়ে মাছ ঢাকা যায় না।”

জানা যায়, গত ২৪ আগস্ট দুদক কক্সবাজার সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক মো. রিয়াজ উদ্দিন এমপি জাফর আলম এবং তার স্ত্রী-সন্তানদের আলাদা চিঠি পাঠান।

চিঠিতে জাফর আলম, তার স্ত্রী শাহেদা বেগম, ছেলে তুহিন আলম ও মেয়ে তানিয়া আফরিনকে ৪ সেপ্টেম্বর দুদকের কক্সবাজার কার্যালয়ে হাজির হয়ে সম্পদের হিসাব দিতে বলা হয়। কিন্তু জাফর আলমের আবেদনের প্রেক্ষিতে ২০ সেপ্টেম্বর হাজির হওয়ার দিন ধার্য্য করা হয়।

দুদকের অভিযোগ, এমপি জাফর আলমের স্ত্রী শাহেদা বেগম চকরিয়া পৌরসভার পালাকাটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক। এই এমপি দম্পতি ও তার পরিবারের সদস্যরা সরকারি জমি, চিংড়ি ঘের, জলমহাল দখল, মাদক কারবার, চাঁদাবাজি এবং অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করে বিক্রির মাধ্যমে কোটি কোটি টাকার অবৈধ সম্পদের মালিক হয়েছেন। এ ছাড়া শাহেদা বেগম দীর্ঘদিন তার কর্মস্থল পালাকাটা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে যান না বলেও অভিযোগে উল্লেখ করা হয়।

তবে সংসদ সদস্য জাফর আলম দুদকের সম্পদ অনুসন্ধানকে ‘চিহ্নিত মহলের ষড়যন্ত্র’ বলে দাবি করেছেন। তিনি দুদকের তদন্তে সহযোগিতা করবেন বলে জানান।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: আওয়ামী লীগ, জাফর, জাফর আলম
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

16 + four =

আরও পড়ুন