স্বাগত ২০২২

fec-image

করোনার দুঃসময় কাটিয়ে নতুন সম্ভাবনার আশায় আনন্দ–উচ্ছ্বাসে খ্রিষ্টীয় নতুন বছরকে বরণ করল দেশের মানুষ। খ্রিষ্টীয় ২০২২–এর প্রথম প্রহরে ফানুস ও আতশবাজিতে উজ্জ্বল হয়ে উঠল রাজধানী ঢাকা। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের বাঁধভাঙা উদ্‌যাপনের সঙ্গী হন শহরজুড়ে ভবনগুলোর বাসিন্দারা। বহুতল ভবনের ছাদে মিলিত হয়ে আতশবাজি ও ফানুস ওড়ান তাঁরা।

২০২১ সালের শেষ সূর্যাস্তের আগে–পরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্র (টিএসসি) এলাকায় বিপুলসংখ্যক মানুষের জমায়েত হলেও ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) নির্দেশনার কারণে সন্ধ্যার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও কর্মকর্তা-কর্মচারী ছাড়া অন্যদের চলে যেতে হয়। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রবেশপথগুলোতে ছিল পুলিশের চেকপোস্ট। ফলে বিশ্ববিদ্যালয় এলাকা স্বাভাবিক সময়ের চেয়ে অনেকটা ফাঁকাই হয়ে পড়ে৷

ঘড়ির কাঁটা ১২টায় পৌঁছাতেই টিএসসির রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশ ও সামনে জড়ো হওয়া শিক্ষার্থীরা ফানুস ওড়ান। একই সময়ে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের টিএসসিসংলগ্ন ফটক থেকে ছোড়া হয় আতশবাজি। আতশবাজির আলোয় উদ্ভাসিত হয়ে ওঠে টিএসসি এলাকা। এ সময় শহরজুড়ে আতশবাজি ফোটানো হয়। পুলিশের নির্দেশনায় উন্মুক্ত স্থানে জড়ো হতে না পারলেও নিজেদের ভবনের ছাদে অবস্থান নিয়ে নতুন বছরকে বরণ করে নগরবাসী।

খ্রিষ্টীয় নববর্ষ উপলক্ষে দেশবাসীকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। নববর্ষ উপলক্ষে পৃথক বাণী দিয়েছেন তাঁরা।

নতুন বছরে বাংলাদেশ অমিত সম্ভাবনার পথে এগিয়ে যাবে বলে আশা প্রকাশ করেন রাষ্ট্রপতি। বাণীতে তিনি বলেছেন, বাংলাদেশে করোনা সংক্রমণ এখন অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে। তবে বিশ্বব্যাপী করোনার নতুন অতি সংক্রামক ধরন ছড়িয়ে পড়ার প্রেক্ষাপটে সতর্ক থাকার বিকল্প নেই। একজনের আনন্দ যেন অন্যদের বিষাদের কারণ না হয়, সেদিকে খেয়াল রেখে দেশবাসীকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে নববর্ষ উদ্‌যাপনের আহ্বান জানান তিনি।

প্রধানমন্ত্রী তাঁর বাণীতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শে উন্নত-সমৃদ্ধ ও অসাম্প্রদায়িক চেতনার সোনার বাংলাদেশ গড়ে তুলতে নতুন বছরে মানুষে মানুষে সৌহার্দ্য ও ভ্রাতৃত্বের বন্ধন জোরদার, সব সংকট দূরীভূত এবং সবার জীবনে অনাবিল সুখ, শান্তি ও সমৃদ্ধি কামনা করেন।

সময় চলে গেলে ‘অতীত’ হয়ে যায়। অতীত মানে সুখের স্মৃতি, দুঃখের স্মৃতি। যোগ-বিয়োগের খেলা খেলতে খেলতে চলে গেল ২০২১ সাল। সদ্য গত হওয়া বছরটি স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর বছর। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশত বার্ষিকী উদযাপনের অংশও ছিল বছরটি।

সুবর্ণজয়ন্তী ও জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকীর বছর

গত ২৬ মার্চ বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপন অনুষ্ঠানে অংশ নিতে ঢাকায় এসেছিলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তার ঢাকা সফরকালে দুই দেশের মধ্যে কয়েকটি সমঝোতা স্মারক (এমওইউ) সই হয়েছিল। বাংলাদেশের বিজয় দিবসের সুবর্ণজয়ন্তী, মুজিববর্ষের সমাপনী দিবস উদযাপন উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে যোগ দিতে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের আমন্ত্রণে ঢাকায় এসেছিলেন ভারতের রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ। তিনি ১৫ ডিসেম্বর তিন দিনের সফরে ঢাকা এসে ১৬ ডিসেম্বর মহান বিজয়ের ৫০ বছর পূর্তির উৎসবে অংশ নেন।

বছরের শেষ দিন পদ্মা সেতুতে হাঁটলেন প্রধানমন্ত্রী

স্বপ্নের পদ্মা সেতুতে বছরের শেষ দিন হেঁটেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এই সেতুর ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার এখন দৃশ্যমান। গত ৯ ডিসেম্বর উত্তরা থেকে আগারগাঁও রুটে পরীক্ষামূলক চলাচল করেছে মেট্রোরেল।

মার্কিন নিষেধাজ্ঞা

বছরের শেষ প্রান্তে এসে একেরপর এক মার্কিন নিষেধাজ্ঞার কবলে পড়ে বাংলাদেশ। আইজিপি, র‌্যাব প্রধানসহ ৭ কর্মকর্তার উপর মার্কিন নিষেধাজ্ঞা, সাবেক স্থাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান এমপিকে কানাডায় ঢুকতে না দেয়া, সাবেক সেনা প্রধান জেনারেল আজিজের যুক্তরাষ্ট্রে ভিসা বাতিল প্রভৃতি নিয়ে বছরের শেষ প্রান্তের প্রধান আলোচ্য বিষয় হয়ে ওঠে।

অসুস্থতা নিয়ে আলোচনায় খালেদা জিয়া

সরকারের নির্বাহী আদেশে জেলবন্দী থেকে মুক্ত হয়ে বিএনপি নেত্রী বেগম খালেদা জিয়া অসুস্থ হয়ে রাজধানীর এভার কেয়ার হাসপাতালে ভর্তি হন। বিভিন্ন সময় তার শারিরীক অবস্থা নিয়ে নানা গুজবে স্যোশাল মিডিয়া সরগরম থাকে। চিকিৎসকদের মতে তার লিভার সিরোসিস ধরা পড়েছে। তার পরিবার তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য বিদেশে নেয়ার আবেদন জানালেও সরকার তাতে আইনী সুযোগ নেই জানিয়ে প্রত্যাখ্যান করেছে বারবার।

এদিকে খালেদা জিয়ার অসুস্থতা নিয়ে বছরের শেষ দিকে তার মুক্তি ও বিদেশে উন্নত চিকিৎসা গ্রহণের সুযোগ দেয়ার দাবীতে তার দল বিএনপি অনেকদিন পরে রাজপথে ধারাবাহিক কর্মসূচী চালিয়ে যাচ্ছে।

আলোচনায় সাবেক প্রতিমন্ত্রী মুরাদ, চিত্রনায়ক ইমন, চিত্রনায়িকা পরীমণি, মাহি

তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসানের পদ হারানোর, নায়িকা পরীমণির একাধিক লাইভ যেমন জিইয়ে রাখবে বছরটিকে তেমনি আরও কিছু ঘটনাও স্মৃতি হয়ে থাকবে। তাছাড়া বছরের শেষ দিকে এসে করোনার নতুন ভ্যারিয়েন্ট ওমিক্রন বিশ্ববাসীকে ফেলেছে চিন্তায়।

বছরের বড় একটা সময় ধরে আলোচনায় ছিলেন চিত্রনায়িকা পরীমণি। ধর্ষণ-হত্যা চেষ্টার অভিযোগ করেন তিনি নাসির উদ্দিন মাহমুদের বিরুদ্ধে গত জুনে। পরীমণি ফেসবুক লাইভে এসে এ অভিযোগ করার পর গ্রেফতার করা হয় অভিযুক্তকে। এক পর্যায়ে মাদক মামলায় গ্রেফতার হন পরীমণিও। ২৬ দিনের মাথায় ৩১ আগস্ট জামিন পান তিনি।

তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান চিত্রনায়ক ইমন ও নায়িকা মাহিয়া মাহির ফোনালাপ ভাইরাল হয় গত ৬ ডিসেম্বর। তা নানা আলোচনা-সমালোচনার জন্ম দেয়। ডা. মুরাদ হাসানের অশ্লীল বাক্য মানুষকে আহত করে। এ অবস্থায় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে পদত্যাগ করেন ডা. মুরাদ। ব্যক্তিগত কারণ উল্লেখ করে পদত্যাগপত্র জমা দেন তিনি। জামালপুর জেলা আওয়ামী লীগ কমিটি থেকেও তাকে বাদ দেওয়া হয়। সব হারিয়ে কানাডায় পাড়ি দিতে চেয়েছিলেন তিনি। কিন্তু সেখানেও থিতু হতে পারেননি একসময়ের বাকপটু এ রাজনীতিবিদ। কানাডায় ঢুকার চেষ্টা করে ব্যর্থ হন মুরাদ। চেষ্টা করেন দুবাইয়েও ঢুকতে। কিন্তু সেখানে অনুমতি না পেয়ে ১২ ডিসেম্বর দেশে ফিরেন। ঢাকার হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে মুখ লুকিয়ে তিনি আভ্যন্তরীণ লাউঞ্জ দিয়ে বের হয়ে যান।

সড়ক দুর্ঘটনা ও শিক্ষার্থীদের নিরাপদ সড়ক আন্দোলন

সড়কে ২০২১ সালে প্রায় চার হাজার দুর্ঘটনা ঘটে। এর মধ্যে ২৪ নভেম্বর রাজধানীর গুলিস্তানে সড়ক দুর্ঘটনায় নটর ডেম কলেজের এক শিক্ষার্থী নাঈম হাসান নিহত হন ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের একটি ময়লার গাড়ির চাপায়। তারপর রাজধানীতে নিরাপদ সড়কের দাবিতে আন্দোলন শুরু করেন শিক্ষার্থীরা। ২৯ নভেম্বর রাতে রামপুরায় বাস চাপায় এসএসসি পরীক্ষার্থী মো. মাঈনুদ্দিন নিহত হন। পরে শিক্ষার্থীরা আবারও আন্দোলনে নামেন।

অগ্নিকাণ্ডের বছর

ঝালকাঠির সুগন্ধা নদীতে এমভি অভিযান-১০ লঞ্চে ২৪ ডিসেম্বর ভোরে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ৪১ জান প্রাণ হারান। এর আগে গত ৮ জুলাই নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জ উপজেলার হাসেম ফুড অ্যান্ড বেভারেজ কারখানায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ৫১ জন শ্রমিকের প্রাণহানি ঘটে।

বছরের শুরুতে ৭ জানুয়ারি রাজধানীর কলাবাগানের মাস্টারমাইন্ড স্কুলের ‘ও’ লেভেলের ছাত্রী আনুশকাকে ধর্ষণে মৃত্যুর অভিযোগ ওঠে। কক্সবাজারে স্বামী-সন্তানকে জিম্মি করে নারীকে ধর্ষণের ঘটনা ঘটে বছরের শেষ দিকে।

গত ১৩ অক্টোবর দুর্গাপূজার সময় পবিত্র কোরআন শরিফ অবমাননার অভিযোগে দেশজুড়ে শুরু হয় সহিংসতা। এসব ঘটনায় প্রাণ হারান অন্তত চারজন।

উন্নয়নে নতুন পালক

দেশের উন্নয়ন অভিযাত্রায় নতুন পালক যোগ করেছে ২০২১। বাংলাদেশ স্বল্পোন্নত দেশের (এলডিসি) তালিকাভুক্ত হয় ১৯৭৫ সালে। গত ২৬ ফেব্রুয়ারি জাতিসংঘের কমিটি ফর ডেভেলপমেন্ট পলিসি (সিডিপি) এলডিসি থেকে উত্তরণের চূড়ান্ত সুপারিশ করেছিল। গত ২৪ নভেম্বর জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদ বাংলাদেশ সম্পর্কে সিডিপির সুপারিশ গ্রহণ করেছে। তাতে করে ২০২৬ সালে এলডিসি থেকে পুরোপুরি বের হয়ে যাবে বাংলাদেশ। এটা দেশের অভিযাত্রায় অন্য এক আনন্দ যোগ করেছে।

ই-কমার্সের আস্থা সংকটের বছর

ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান ইভ্যালির পতন হয়েছে ২০২১ সালে। এরই জেরে পুরো খাতজুড়ে ছিল অস্থিরতা। একের পর এক ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানের কর্তা ব্যক্তিদের অনিয়ম সামনে আসলে আস্তা সংকটে ভোগে উদীয়মান এ খাতটি। হাজার হাজার গ্রাহকের চোখের জল ঝরিয়েছে এ খাত।

সমালোচনায় তাহসান খান, মিথিলা ও শবনম ফারিয়া

ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে যুক্ত হয়ে সাধারণ মানুষের সমালোচনায় পড়েন তাহসান খান, মিথিলা ও শবনম ফারিয়া। নানা অনিয়মের অভিযোগে তাদের বিরুদ্ধে এরই মধ্যে মামলা হয়েছে।

নজর কেড়েছে নারী ক্রিকেট দল

প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপ ক্রিকেট খেলার যোগ্যতা অর্জন করে সবার নজর কেড়েছে নারী ক্রিকেট দল। অনূর্ধ্ব-১৯ নারী ফুটবল দল ভারতকে হারিয়ে অনূর্ধ্ব-১৯ নারী সাফে অপরাজিত চ্যাম্পিয়ন হয়েছে বাংলাদেশ।

বিতর্কিত মন্তব্য সব কেড়ে নেয় মেয়র জাহাঙ্গীর ও হাফিজুরের

বিতর্কিত মন্তব্যের জেরে গাজীপুর সিটি করপোরেশনের মেয়র ও গাজীপুর নগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলমকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয় গত ১৯ নভেম্বর। পরে মেয়র পদও হারাতে হয়েছে তাঁকে। গত জুনে প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে কটূক্তির অভিযোগে টাঙ্গাইলের প্যানেল মেয়র হাফিজুর রহমানকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়।

ধর্ষণ মামলার রায় নিয়ে তীব্র সমালোচনা

বনানীতে রেইনট্রি হোটেলে চার বছর আগে দুই তরুণী ধর্ষণের মামলা বহুল আলোচিত। মামলার রায় হয় গত ১১ নভেম্বর। অভিযুক্ত আপন জুয়েলার্সের মালিকের ছেলে সাফাত আহমেদসহ পাঁচ আসামিকেই খালাস দেন ঢাকার ৭ নম্বর নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক বেগম মোছা. কামরুন্নাহার।

বিচারক মৌখিক রায়ে পুলিশকে পরামর্শ দিয়ে বলেছিলেন, ধর্ষণের ঘটনায় ৭২ ঘণ্টা পেরিয়ে গেলে যেন মামলা না নেওয়া হয়। এই বক্তব্যের তীব্র প্রতিক্রিয়া হয়। আইনমন্ত্রীও এই বক্তব্যকে অসাংবিধানিক ও বেআইনি বলে উল্লেখ করেছিলেন। পরে তার বিচারিক ক্ষমতাই প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে সাংবাদিককে আটকে রাখার বছর

সাংবাদিক রোজিনা ইসলামকে আটক, মামলা ও জেলে নেওয়ার ঘটনা আলোচিত হয় ২০২১ সালে। ১৭ মে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে ৫ ঘণ্টা আটকে রাখা হয় রোজিনাকে। পরে তার বিরুদ্ধে মামলাও হয়।

বছরজুড়ে চাল, জ্বালানি তেলের ঊর্ধ্বমুখী দাম

২০২১ সালজুড়ে চালের দাম ছিল ঊর্ধ্বমুখী। এছাড়া জ্বালানি তেল দাম বৃদ্ধিকে কেন্দ্র করে শুরু হয় বাস ও ট্রাক ধর্মঘট। পরিবহন মালিকদের চাপে শেষ পর্যন্ত ভাড়া বাড়াতে বাধ্য হয় সরকার। গত ১ ডিসেম্বর থেকে ছাত্রছাত্রীদের জন্য হাফ ভাড়া চালু হয় বিআরটিসির বাসে।

বৈশ্বিক প্রেক্ষাপট

জলবায়ু সংকট, করোনা মহামারি আর বিভিন্ন দেশের মধ্যে পারস্পরিক বিরোধ নিয়ে উত্তেজনায় কেটেছে গত বছরটি। নতুন বছরের শুরুতে বিশ্ব নতুন কিছু চ্যালেঞ্জের মুখে পড়বে।

করোনা মহামারির ফিরে আসার উদ্বেগ, জলবায়ু পরিস্থিতি মোকাবিলা, গণতন্ত্র ও স্বৈরতন্ত্রের মধ্যে লড়াই, মানবিক সংকট, গণ-অভিবাসন ও আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদ এর অন্যতম। এ ছাড়া নতুন আন্তরাষ্ট্রীয় সংঘাতের ঝুঁকি, নিয়মভিত্তিক আন্তর্জাতিক ব্যবস্থা ভেঙে দেওয়া এবং প্রাণঘাতী স্বায়ত্তশাসিত অস্ত্রের বিস্তারের আশঙ্কাও বাড়তে পারে। সব মিলিয়ে বিশ্বের অধিকাংশ মানুষের জন্যই ২০২২ সাল বিপজ্জনক একটি বছর হতে পারে বলে দ্য গার্ডিয়ান-এর এক প্রতিবেদনে আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছে।
তবে একই সঙ্গে নতুন বছরে বেশ কিছু ইতিবাচক ঘটনা ঘটতে পারে বলেও পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে। যাতে আঁধার কেটে আশার আলো দেখা দিতে পারে। এর মধ্যে একটি হচ্ছে বিশ্বে করোনা মহামারির ধকল কেটে যাওয়া। কিন্তু তার জন্য অমিক্রনের ধকল সামলাতে হবে। বিশ্বে টিকাবৈষম্য দূর করতে হবে। নভেম্বরে কাতারে ফুটবল বিশ্বকাপ ছাড়াও বেইজিংয়ে উইন্টার অলিম্পিকের আয়োজন, বিশ্বজুড়ে কয়েকটি দেশে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের মাধ্যমে গণতান্ত্রিক ধারায় ফেরার বিষয়টি বিশ্বের জন্য আশাব্যঞ্জক হয়ে উঠতে পারে।

গার্ডিয়ান-এর প্রতিবেদনে বলা হয়, কাতারের মতো মধ্যপ্রাচ্যের কোনো মুসলিম দেশ প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপ আয়োজন করবে। যদিও এ নিয়ে দুর্নীতির অভিযোগ রয়েছে। দেশটির মানবাধিকার পরিস্থিতি সবার নজর কাড়বে। এ বছর ইরানের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্র ও ইসরায়েল নতুন কোনো ব্যবস্থা নেবে কি না, তার ওপর চোখ থাকবে বিশ্ববাসীর। তেহরান পারমাণবিক সক্ষমতা অর্জন করে ফেলবে কি না, তারও উদ্বেগ থেকে যাবে। এ বছর তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ানের দল একেপি পার্টির দুই দশক পূর্ণ হবে। ইউরোপ ও যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে রাশিয়ার সম্পর্ক কোথায় গিয়ে ঠেকবে, সেদিকেও চোখ রাখতে হবে। ১০ জানুয়ারি জেনেভায় মুখোমুখি বৈঠকে বসছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ও রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। ইউক্রেন সমস্যা সমাধান নিয়ে আলোচনা করবেন তাঁরা।

লিবিয়া ও ইয়েমেনের পথ ধরে লেবানন ব্যর্থ রাষ্ট্রের খাতায় নাম লেখাতে যাচ্ছে কি না, তা-ও চোখে পড়তে পারে। নিবিড় দৃষ্টি রাখতে হবে ফিলিস্তিনের দিকেও। ফিলিস্তিনি প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাস কোন পথে হাঁটেন, সেটা গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠবে।

এশিয়ায় চীনের ওপর পুরো বিশ্ববাসীর চোখ থাকবে। উইন্টার অলিম্পিক ঘিরে ইতিমধ্যে যুক্তরাষ্ট্র ও যুক্তরাজ্যের সঙ্গে রাজনীতি ঘোলাটে হয়েছে। দুই দেশ এই আয়োজনে আসছে না। চীনের কমিউনিস্ট পার্টির ২০তম সম্মেলন গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠতে পারে। ধারণা করা হচ্ছে, চীনের প্রেসিডেন্ট সি চিন পিং আরও পাঁচ বছর ক্ষমতা পাকাপোক্ত করে নেবেন।

এ বছর চীনের আঞ্চলিক প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে বিশ্বমঞ্চে ভারত তাদের কর্মযজ্ঞ আরও বাড়িতে তুলতে পারে। এ সময় ভারতের জনসংখ্যা চীনকে ছাড়িয়ে ১৪১ কোটিতে দাঁড়াতে পারে। দুই দেশের মধ্যে সীমান্ত সমস্যা আরও বড় হয়ে উঠতে পারে। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির দল আবারও কোণঠাসা অবস্থা থেকে ঘুরে দাঁড়াতে চেষ্টা চালাবে।

এশিয়ার মধ্যে মিয়ানমারে সহিংস দমন-পীড়ন এবং তালেবানের আফগানিস্তান দখলের পর জনগণের দুর্দশায় পশ্চিমাদের সুনির্দিষ্ট পদক্ষেপের বদলে হাত গুটিয়ে নিতে দেখা যাবে। উত্তর কোরিয়া নতুন করে তাদের পারমাণবিক ক্ষমতার প্রদর্শন করতে পারে। ফিলিপাইনে আসতে পারে নতুন প্রেসিডেন্ট। অস্ট্রেলিয়ায় স্কট মরিসন আবার নতুন করে ক্ষমতায় আসবেন।

ইউরোপ অঞ্চলের জন্য বছরটি হবে জটিল। করোনা মহামারির ব্যাপক বিস্তারের কারণে ইউরোপ পর্যুদস্ত। এর সামাজিক ও অর্থনৈতিক প্রভাব এর ওপর দেখা যেতে পারে। ফ্রান্সে এ বছর নতুন করে প্রেসিডেন্টের পরীক্ষা দিতে হবে এমানুয়েল মাখোঁকে।

জার্মানিতে ওলাফ শলৎজের নতুন সরকারকে করোনা মহামারি পরবর্তী পরীক্ষা দিতে হবে। ম্যার্কেলের শাসনের পরবর্তী যে দায়িত্ব তিনি নিয়েছেন তা কতখানি সামলাতে পারবেন, তা এ বছরে বুঝে যাবেন বিশ্ববাসী। অন্যদিকে অভিবাসীদের অস্ত্র হিসেবে ব্যবহার করা বেলারুশের সঙ্গে ইউরোপের দেশগুলোর সম্পর্কের টানাপোড়েন কোথায় দাঁড়াবে, তা-ও গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠবে।

লাতিন আমেরিকার মধ্যে ব্রাজিলের নির্বাচন ঘিরে চোখ থাকবে এ বছর। বর্তমান প্রেসিডেন্ট জইর বলসোনারো ইতিমধ্যে নির্বাচন ঘিরে দুর্নীতির অভিযোগ তুলতে শুরু করেছেন। মতামত জরিপে বলসোনারোর চেয়ে এগিয়ে আছেন দেশটির সাবেক প্রেসিডেন্ট লুলা ডি সিলভা।

যুক্তরাষ্ট্রে আগামী নভেম্বরে মধ্যবর্তী নির্বাচন। সেখানে ডেমোক্র্যাটদের সিনেট ও প্রতিনিধি পরিষদে বড় পরীক্ষা দিতে হবে। এ নির্বাচনের ফল খারাপ হলে বাইডেনের প্রেসিডেন্ট পদে থাকা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করবে।

এ বছর আফ্রিকা মহাদেশের দেশগুলোর জন্য বড় প্রশ্ন হয়ে উঠবে তাদের টিকা পাওয়ার বিষয়টি।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

sixteen + one =

আরও পড়ুন