স্মার্ট টিভি কেনার আগে যে ৮টি বিষয় জানা জরুরি

fec-image

আধুনিক প্রযুক্তির কল্যাণে আমাদের জীবন হয়েছে সহজ থেকে সহজতর। উন্নত আর স্মার্ট সব গ্যাজেট আমাদের জীবন করেছে আরও রঙিন। বিনোদনের অন্যতম মাধ্যম হচ্ছে টেলিভিশন। সবার ঘরেই রয়েছে বিভিন্ন মাপের টিভি। তবে আরও বেশি সুবিধা পেতে অনেকেই কিনছেন স্মার্ট টিভি।

স্মার্ট টিভির সুবিধা হচ্ছে, এতে সাধারণ ডিশ লাইনের পাশাপাশি ইন্টারনেটও চলে এবং বিভিন্ন অ্যাপ ইনস্টল করা যায়। স্মার্ট টিভিতে ইউটিউব, নেটফ্লিক্স প্রভৃতি দেখা যায়। এমনকি এতে ফেসবুকও চলে!

বাজারে বিদেশি বিভিন্ন ব্র্যান্ডের পাশাপাশি দেশিয় কোম্পানির স্মার্ট টিভি পেয়ে যাবেন। সাধ্যের মধ্যে থাকবে এর দামও। তবে এতোসব স্মার্ট টিভির ভিড়ে কোন স্মার্ট টিভিটা কিনবেন, কেমন হবে, কীভাবে ভালোমন্দ বের করবেন। এমন সব নানান প্রশ্ন আর বিভ্রান্তিতে পড়েন অনেকেই।

স্মার্ট টিভি কেনার আগে যে বিষয়গুলো জানা থাকলে ঠকার সম্ভাবনা কম থাকবে। আর সাধ্যের মধ্যে মনের মতো স্মার্ট টিভিও পাবেন আপনি। চলুন জেনে নেওয়া যাক স্মার্ট টিভি কেনার আগে মাথায় রাখবেন-

* টিভি কেনার আগেই যে কাজটি করবেন তা হচ্ছে, সাইজটি নির্বাচন করুন। শোরুমে গিয়ে বড় টিভিটা ধরে বসে থাকলে হবে না। যতই দামে কম , মানে ভালো হোক। আপনার ঘরের মাপ অনুযায়ী টিভির সাইজ নির্বাচন করুন।

দর্শক হিসেবে যে কেউ বড় টিভিই পছন্দ করেন। তবে বড় সাইজের টিভি কিনলেই তা আপনার জন্য যথাযোগ্য হবে, এমন ব্যাপার নয়। আপনার ঘর বা যে রুমে স্মার্ট টিভি রাখবেন, তা যদি সংকীর্ণ হয় সেক্ষেত্রে টিভি দেখতে কষ্ট হয়ে যাবে।

* দামের ব্যেযাপারে আগেই ধারণা নিতে পারেন। দিনদিন টিভির দাম কমছে। আপনি যত বেশি খরচ করবেন, ততো বেশি ভালো মানের টিভিই বাজারে রয়েছে। একটি স্মার্ট টিভির জন্য ভালো ইনভেস্ট করতে পারলে পাবেন ডিপার ব্ল্যাক, বেটার কনট্রাস্ট, উন্নত কালার স্পেকট্রাম, ইত্যাদি। এসবের পাশাপাশি আবার বেশি মূল্যের টিভিতে পেয়ে যাবেন আরও বড় স্ক্রিন।

* স্মার্ট টিভির মধ্যে এলইডি (LED) বা ওলেড (OLED)-দুইটি প্রযুক্তিই অসাধারণ। তবে ওলেড এর চেয়ে দামে এলইডি অনেকটাই কম। এলইডি টিভিসমূহ মূলত ব্যাকলিট প্রযুক্তি ব্যবহার করে যা ছবি তৈরিতে সমস্ত ক্রিস্টেলকে একটি প্যানেল হিসেবে ব্যবহার করে। অন্যদিকে ওলেড কিন্তু ব্যাকলিট নয়। ওলেড টিভি প্রতিটি পিক্সেল আলাদা ভাবে লাইট আপ হয়ে একসঙ্গে হয়ে ছবি তৈরি করে।

* টিভির রেজ্যুলুশন খুবই গুরুত্বপূর্ণ। এইচডি, ফুল এইচডি, ৪কে ইউএইচডি ও ৮কে উইএইচডি চার ধরনের রেজ্যুলুশনে স্মার্ট টিভি পাবেন।

* শুনতে অদ্ভুত শোনালেও টিভির পাশাপাশি এর ক্যাবল ও সংযুক্ত অন্যান্য সরঞ্জামের কার্যকরীতা নিশ্চিত করাও আপনার কাজের খাতায় থাকা দরকার। শুধুমাত্র ভালো ক্যাবল এর মাধ্যমেও দারুণ স্পিড ও ভালো ব্যান্ডউইথ নিশ্চিত করা যায়।

* অডিওর দিকটা ভালো করে খেয়াল করুন। যে কোনো অভিজ্ঞতার অর্ধেকই নির্ভর করে সাউন্ডের উপর। তাই শুধু দামি স্মার্ট টিভি কেনাটাই যথেষ্ট নয়। দারুণ ভিডিও কোয়ালিটির পাশাপাশি দরকার হবে অসাধারণ অডিও সেটাপের। তাই স্মার্ট টিভি কেনার আগে অডিও সেটাপকে যথেষ্ট গুরুত্ব দিন।

* চমৎকার দেখতে রিমোট কনট্রোল দেখে এর প্রেমে পড়ে গিয়ে টিভি কিনে বসবেন না। এই রিমোট যে কোনো সময়েই পরিবর্তন সম্ভব। এছাড়াও কিছু থার্ড পার্টি রিমোট কনট্রোল সত্যিই অসাধারণ। তারপরও রিমোট কন্ট্রোলার ঠিকঠাক আছে কিনা বুঝে নিন।

* টিভি কেনার সময় অবশ্যই ওয়ারেন্টির কথা জেনে নিন। এতো দাম দিয়ে টিভি কিনবেন, আর সাথে ওয়ারেন্টি পাবেন না- তা তো মেনে নেওয়া যায় না। অথোরাইজড ডিলার থেকে যখনই নতুন টিভি কিনবেন, বেশিরভাগ ক্ষেত্রে টিভি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান এর পক্ষ থেকে ওয়ারেন্টি দেওয়া হয়। তাই আপনার নতুন স্মার্ট টিভির সঙ্গে একজন স্মার্ট ইউজার হিসেবে অবশ্যই অফিসিয়াল ওয়ারেন্টি পাওয়ার ব্যাপারটি নিশ্চিত করুন।

* টিভি হোক বা অন্য যেকোনো ইলেকট্রনিকস, যথাসম্ভব বিশ্বাসযোগ্য ব্র্যান্ড থেকেই পণ্য ক্রয় করুন। অথোরাইজড ডিলার থেকে কিনুন, যাতে ওয়ারেন্টি, প্রয়োজনে সার্ভিস ও সাপোর্ট পেতে পারেন।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

3 × one =

আরও পড়ুন