আধিপত্য বিস্তার ও পূর্ব শত্রুতার জেরে

হত্যা মামলার আসামিকে কুপিয়ে হত্যা, পা কেটে নিয়ে গেলো দুর্বৃত্তরা

fec-image

কক্সবাজারের পেকুয়ায় আলোচিত ব্যবসায়ী জয়নাল হত্যা মামলার আসামি আবু ছৈয়দকে (৪০) কুপিয়ে হত্যা করেছে একদল দুর্বৃত্ত। এসময় তাঁর একটি পা কেটে নিয়ে যায় তারা। এ ঘটনায় আরও চারজন আহত হয়েছেন।

মঙ্গলবার (১০ অক্টোবর) বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে উপজেলার মগনামা ইউনিয়নের আফজলিয়া পাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা আহতদেরকে উদ্ধার করে পেকুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করলে আবু ছৈয়দের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। পরে পথেমধ্যে তার মৃত্যু হয়।

নিহত ওই এলাকার মৃত বদিউর রহমানের ছেলে। এ ঘটনায় আহতরা হলেন, আবু ছৈয়দের স্ত্রী বুলবুল আক্তার (৩৪), তার স্ত্রীর বড় ভাই খোকন (৪০), একই এলাকার আবদুল মজিদের স্ত্রী শাকিলা (৩৩) ও ছেলে এনাম (১৭)।

এদিকে ঘটনার খবর পেয়ে পেকুয়া থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ওই এলাকায় পরিস্থিতি থমথমে বিরাজ করছে এবং অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়ন রয়েছে। পুলিশ এ ঘটনায় জড়িত আফজালিয়া পাড়ার আনোয়ার হোসেনের ছেলে মহিউদ্দিন ও কামাল হোসেনের ছেলে জয়নাল আবেদীন জনুকে ঘটনাস্থল থেকে আটক করে।

আবু ছৈয়দের শাশুড়ি মোবারেকা বেগম বলেন, আবু ছৈয়দ চিংড়ি ঘের থেকে দুপুরে খাবার খেতে তাঁর বাড়িতে আসে। সে বাড়িতে আসার খবর পেয়ে অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীরা পাশের আলী আকবরের বাড়িতে অবস্থান নেয়। বিকেলের দিকে বাড়িতে হানা দেয় তাঁরা। এসময় মৃত রুস্তম আলীর ছেলে আলী আকবর, আনোয়ার হোসেন, নুরুল ইসলামের ছেলে নেজাম উদ্দিন, নুর মুহাম্মদের ছেলে ইউনুস, আনিস, মৃত নুরুন্নবীর ছেলে আনসার, ছোটন, আমির হোসেন, শাহাব উদ্দিন, শাহাব উদ্দিনের ছেলে তৈয়ব, ছিদ্দিক আহমদের ছেলে আরকান, কামাল হোসেনের ছেলে জয়নাল আবেদীন ওরফে জনু, আনোয়ার হোসেনের ছেলে গিয়াস উদ্দিন ওরফে সোনা মিয়াসহ ১৫-২০ জনের ধারালো অস্ত্র দিয়ে বাড়িতে ঢুকে এলোপাতাড়ি কোপাতে থাকে। প্রাণ বাঁচাতে সে খাটের নিচে ঢুকে পড়ে। সেখান থেকে তাকে টেনেহিঁচড়ে বের করে হাত-পা চেপে ধরে কুপিয়ে ডান পা শরীর থেকে বিচ্ছিন্ন করে ফেলে। এসময় একটি পা কেটে নিয়ে যায় সন্ত্রাসীরা।

এ বিষয়ে পেকুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ওমর হায়দার বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। ঘটনার সাথে জড়িতদের আটক করতে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

উল্লেখ্য যে, ২০২১ সালের ২ মে এলাকায় আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে মগনামায় কুপিয়ে হত্যা করা হয় ব্যবসায়ী জয়নাল আবেদীনকে। এ হত্যা মামলার এজাহারভুক্ত ৩নং আসামি করা হয়েছিল আবু ছৈয়দকে। জয়নাল হত্যা মামলায় কারাগার থেকে ছয়মাস আগে জামিনে বের হন আবু ছৈয়দ। জয়নাল হত্যার জেরেই আবু ছৈয়দকে হত্যা করা হয়েছে বলে ধারণা করছেন স্থানীয়রা।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: আসামি, দুর্বৃত্তরা, হত্যা মামলা
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন