হেগে আদালতের কাঠগড়ায় সুচি : গাম্বিয়া গাম্বিয়া’ শ্লোগান রোহিঙ্গা ক্যাম্পে

fec-image

মিয়ানমারে রোহিঙ্গা গণহত্যার রিরুদ্ধে গাম্বিয়ার দায়ের করা আন্তর্জাতিক বিচার আদালতে আসামির কাঠগড়ায় দাঁড়াচ্ছেন মিয়ানমার নেত্রী অং সাং সুচি।

মঙ্গলবার (১০ ডিসেম্বর) হেগের ওই আদালতে শুনানি শুরু হয়েছে। আর এই শুনানি চলবে ১২ ডিসেম্বর পর্যন্ত। এতে জাম্বিয়ার সমর্থনে উখিয়া টেকনাফের রোহিঙ্গা ক্যাম্পে রোহিঙ্গাদের গাম্বিয়া গাম্বিয়া শ্লোগান দিতে শোনা গেছে।

এই মামলায় গাম্বিয়াকে সহায়তা দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে কানাডা ও নেদারল্যান্ড। এক যৌথ বিবৃতিতে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরকারী গাম্বিয়াকে সহায়তা দেয়ার ঘোষণা দেন কানাডা ও নেদারল্যান্ডস।

গোড়া থেকে মিয়ানমারে রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠী নির্মূলে গণহত্যার কথা অস্বীকার করে এলেও আজ হেগে আন্তর্জাতিক আদালতে আসামির কাঠগড়ায় দাঁড়াতে যাচ্ছেন মিয়ানমারের নেত্রী অং সাং সুচি।

তার আগে ৭ জন নোবেল বিজয়ী এক বিবৃতিতে আদালতে প্রকাশ্যে গণহত্যার অভিযোগ স্বীকার করে নিতে সুচি’র প্রতি আহবান জানিয়েছেন বলে জানা গেছে । এই আদালতে সূ চি তার দেশের সেনাবাহিনীর পক্ষ অবলম্বন করে আইনী লড়াইয়ের জন্য গেছেন। এ জন্য তাঁর দিকে বাঁকা চোখে তাকাচ্ছেন পর্যবেক্ষকরা।

হেগের আন্তর্জাতিক ক্রাইম আদালতে গাম্বিয়া রোহিঙ্গা গণহত্যার বিচারে মামলা দায়ের করায় গাম্বিয়ার সামর্থনে রোহিঙ্গারা ‘গাম্বিয়া গাম্বিয়া’ শ্লোগানে মুখর করে তোলে রোহিঙ্গা ক্যাম্প।

পশ্চিম আফ্রিকার এ দেশটি রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর ওপর গণহত্যা চালানোর অভিযোগে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে গত ১১ই নভেম্বর আন্তর্জাতিক বিচারিক আদালতে মামলা করেন।

আজ এ ইস্যুতে আদালতে শুনানি হচ্ছে। এর প্রেক্ষিতে সকালে কক্সবাজার রোহিঙ্গা ক্যাম্পে আইসিজে গণহত্যার বিচারের আগে ‘গাম্বিয়া, গাম্বিয়া’ শ্লোগানে মুখর করে তোলে রোহিঙ্গারা।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

four × one =

আরও পড়ুন