২১ দফা কর্মসুচি বাস্তবায়নে মাটিরাঙ্গা পৌরবাসীর ভোট চাইলেন এমএম জাহাঙ্গীর আলম

fec-image

উন্নয়ন বঞ্চিত মাটিরাঙ্গা পৌরসভার উন্নয়নসহ পৌরবাসীর জীবনমান উন্নয়নে ২১ দফা কর্মসুচি বাস্তবায়নে ১৪ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত মাটিরাঙ্গা পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে পৌরবাসীর ভোট চাইলেন স্বতন্ত্র প্রার্থী এমএম জাহাঙ্গীর আলম।

মাটিরাঙ্গা পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে প্রতীক বরাদ্ধ পাওয়ার পরপরই বুধবার (২৭ জানুয়ারি) দুপুরে চৌধুরীপাড়ায় নিজ বাসভবনে সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময়কালে নিজের ২১ দফা কর্মসুচি ঘোষণা করেন মাটিরাঙ্গা পৌর আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি এমএম জাহাঙ্গীর আলম।

জবাবদিহিমূলক মাটিরাঙ্গা পৌর প্রশাসন গড়ে তোলা, পৌরশহরকে আধুনিকায়ন করা, যানজট নিরসনে সমন্বিত পরিকল্পনা গ্রহণ, পর্যটনবান্ধব পৌরসভায় উন্নীত করন, পৌর পরিবহন টার্মিনাল নির্মাণ, পৌর শিক্ষাবৃত্তি চালু করা, নাগরিক সুবিধা বৃদ্ধির লক্ষ্যে প্রযুক্তিনির্ভর ও ডিজিটালাইজড করা , পৌর সড়ক প্রশ্বস্তকরন ও সংস্কার করা, সুপেয় পানির ব্যাবস্থা করণ, নাগরিক সেবা প্রদানে ওপেন হাউস ডে চালু করণ, ধলিয়া লেকের সৌন্দর্য্য বর্ধনে ওয়াকওয়ে নির্মাণ, পৌর নাগরিক সেবায় ২৪/৭ ভিত্তিতে হেল্পলাইন চালুকরণ ও দুর্নীতি বন্ধে জিরো টলারেন্স নীতি অনুসরণসহ ২১দফা ইশতেহার ঘোষণা করেন এমএম জাহাঙ্গীর আলম।

মতবিনিময়কালে নির্বাচন যেন পক্ষপাতহীন অবাধ ও নিরপেক্ষ হয় সে জন্য সাংবাদিকসহ প্রশাসনের সর্বাত্বক সহযোগিতা কামনা করেন স্বতন্ত্র প্রার্থী এমএম জাহাঙ্গীর আলম।

তিনি বলেন, আমি মাটিরাঙ্গারই সন্তান মাটিরাঙ্গার ধূলোবালিতে আমার বেড়ে উঠা,মাটিরাঙ্গার গণমানুষের সাথে সুখে-দুখে পাশে সাথী হতে জনগনের মনোনীত প্রার্থী হিসেবে এবারের ভোটযুদ্ধে জনগনের দুয়ারে হাজির হয়েছি।

ভোটারদের উদ্দ্যেশ্য তিনি বলেন, মুল্যবান ভোট আপনার, সিদ্ধান্তও আপনার। ২১ দফা কর্মসুচী বাস্তবায়নে ১৪ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত নির্বাচনে মাটিরাঙ্গার সন্তানকে নির্বাচিত করে মাটিরাঙ্গা পৌরসভার উন্নয়নে ভুমিকা রাখুন।

প্রসঙ্গত, মাটিরাঙ্গা পৌরসভায় মোট ভোটার সংখ্যা ১৮ হাজার ৯শ ৬৫ জন। পুরুষ ভোটার ৯ হাজার ৮শ ৬ জন এবং নারী ভোটার ৯ হাজার ১শ ৬৯ জন বলে জানা যায়। মাটিরাঙ্গা পৌরসভা নির্বাচনে ৯টি ভোট কেন্দ্রে ৫৫টি বুথে ভোট গ্রহণের কথা রয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: নির্বাচন, মাটিরাঙা
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

4 × four =

আরও পড়ুন