রাঙামাটিতে ভোট গ্রহণ চলছে : অধিকাংশ কেন্দ্রে ভোটারের উপস্থিতি কম

Rangamati Election Picture 05-01-14-01

রাঙামাটি থেকে আলমগীর মানিক :

১০ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ২৯৯ নং রাঙামাটি আসনের জেলার দশটি উপজেলায় ২০১টি ভোট কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ চলছে। ভোট কেন্দ্রগুলোতে ভোটারদের দীর্ঘ লাইনের সারি দেখা না গেলেও ভোটাররা বিক্ষিপ্তভাবে ভোট কেন্দ্রে এসে ভোট দিতে দেখা গেছে। রাঙামাটি শহরের রানী দয়ময়ী উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে সকাল সাড়ে আটটায় পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতি সমর্থিত হাতি মার্কা নিয়ে প্রতিদ্বন্ধিতাকারি স্বতন্ত্র প্রার্থী উষাতন তালুকদার ভোট দেন। এদিকে সকাল নয়টায় রাঙামাটি শহরের চম্পক নগর এলাকায় বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড রেস্ট হাউস কেন্দ্রে ভোট দেন আওয়ামীলীগের প্রার্থী দিপংকর তালুকদার। জেলার প্রায় প্রতিটি ভোট কেন্দ্রেই পাহাড়ি নারী ভোটারদের উপস্থিতি ছিলো কিছুটা বেশী দেখা গেলেও কেন্দ্রের বেশিরভাগ বুথই ছিলো ফাঁকা।

পার্বত্য এলাকায় মোবাইল নেটওয়ার্ক বন্ধ থাকায় রাঙামাটি জেলার প্রায় সবগুলো উপজেলার ভোট কেন্দ্রের সার্বিক অবস্থা সঠিকভাবে জানা সম্ভব হচ্ছে না। তবে কোনো কেন্দ্রে সকাল দশটা পর্যন্ত কোনো ধরনের গোলযোগের খবর পাওয়া যায়নি।

এদিকে আকস্মিকভাবে মোবাইল নেটওয়ার্ক বন্ধ করে দেওয়ায় রাঙামাটি আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী উষাতন তালুকদার ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। তবে আওয়ামী লীগের প্রার্থী দীপংকর তালুকদার জানান, নির্বাচন কমিশনের নির্দেশে নেটওয়ার্ক বন্ধ রাখা রয়েছে।

রাঙামাটি জেলায় ২০১টি কেন্দ্রে এবারে মোট ভোটার সংখ্যা হলো ৩৭৭৩২২ জন। এই আসনে মোট ছয়জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্ধিতা করছেন।

রাঙামাটি জেলার আয়তনঃ ৬১১৬.১৩ বর্গ কিলোমিটার। মোট ১০ টি উপজেলা, ২টি পৌরসভা, ৪৯টি ইউনিয়ন, ১৩৪৭ টি গ্রাম ও ১২টি থানা। মোট জনসংখ্যা : ৬,২০,২১৪ জন। পুরুষ : ৩,২৫,৮২৩জন। মহিলা : ২,৯৪,৩৯১ জন। মোট জনসংখ্যার ৫২% উপজাতি ও ৪৮% বাঙ্গালী। এবারের নির্বাচনে প্রার্থী : ৬ জন।

আওয়ামীলীগের- দীপংকর তালুকদার-নৌকা, পার্বত্য চট্টগ্রাম জন সংহতি সমিতি সমর্থিত- উষাতন তালুকদার- হাতী, বাঙ্গালী স্বতন্ত্র -এডভোকেট আবছার আলী—আনারস, জন সংহতি সমিতি (এম এন লারমা ) সমর্থিত -সুধাসিন্ধু খীসা-বই। জাতীয় পার্টির রুপম দেওয়ান–লাঙ্গল, ইউপিডিএফ সমর্থিত সচিব চাকমা — উড়োজাহাজ।

মোট ভোটার : ৩ লক্ষ ৭৭হাজার ৩শ ২২জন। পুরুষ ভোটার : ১ লক্ষ ৯৮ হাজার ৬শ ৮৩ জন। নারী ভোটার : ১ লক্ষ ৭২ হাজার ৬শ ৬৫ জন। ভোট কেন্দ্র-২০১ টি ( সদর উপজেলায় ৩৬টি, বাঘাইছড়ি ৩৮টি, লংগদু ২২টি, নানিয়ারচর ১৪টি, বরকল ১৭টি, জুরাছড়ি ১৩টি, কাউখালী ২০টি, কাপ্তাই ১৮টি, রাজস্থলী ১২টি ও বিলাইছড়ি উপজেলায় ১১ টি ভোট কেন্দ্রে)। বুথ-৮৬৬টি, ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্র -৩৩ টি, কম ঝুঁকিপূর্ণ কেন্দ্র-৮৮ টি, হেলি সর্টি ভোট কেন্দ্র-১৬ টি ( বাঘাইছড়ি -৬, বরকল-২, জুড়াছড়ি-৬, রাজস্থলী ১, ও বিলাইছড়ি-১), নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট-২০ জন, নতুন ভোটার : ৪৫ হাজার ৫শ ১০ জন। সংসদীয় আসনঃ ১টি। আসন নং-২৯৯।

গত ৪টি নির্বাচনে এ আসন থেকে তিনবার বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ ও একবার বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি বিজয়ী হয়।

এ আসনে ১৯৯১ সালে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ -২৪৬০৪ ভোটে, ১৯৯৬ সালে আওয়ামীলীগ -২৪৬৯২ ভোটে, ২০০১ সালে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি -১৭৭৪৪ ভোটে এবং ২০০৮ সালে আওয়ামীলীগ -৫৮৫৮৩ ভোটে জয়ী হয়েছেন।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

16 + eleven =

আরও পড়ুন