৭ দিন ধরে কুতুবদিয়ায় বিদ্যুৎ উৎপাদন বন্ধ

fec-image

কুতুবদিয়া বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্রে বিদ্যুৎ উৎপাদন হচ্ছেনা ৭ দিন ধরে। মেশিন নষ্টের অজুহাতে গত বুধবার বিদ্যুৎ সরবরাহ দেবে বলে প্রচারণা করেও তাতে ব্যর্থ হয়েছে আবাসিক প্রকৌশলী। ফলে উপজেলা সদরে প্রায় ৭‘শ গ্রাহক বিদ্যুৎ সুবিধা থেকে বঞ্চিত আছে।

সংশ্লিস্ট সূত্র জানায়, কুতুবদিয়া বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্রে জেনারেটর মেশিন দিয়ে সরবরাহকৃত বিদ্যুৎ বন্ধ রয়েছে গত ৩০ আগস্ট থেকে। মেশিনে ওভাররোলিং হওয়ায় মেশিনটি নষ্ট হয়ে পড়ে। গ্রাহকদের জানাতে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ মেশিনটি মেরামত করে গত বুধবার(৪ সেপ্টেম্বর) পূণঃ বিদ্যুৎ সরবরাহ দেবার জন্য মাইকে প্রচারণাও করেন। নানা ভোগান্তির পর বুধবার বিদ্যুৎ পায়নি গ্রাহকরা। সন্ধ্যা থেকে রাত ১১ টা পর্যন্ত সাড়ে চার ঘন্টা বিদ্যুতে চলে উপজেলা সদর। গত ৭দিন ধরে সেটিও বন্ধ থাকায় সরকারি বিভিন্ন দপ্তরে রাত্রিকালীন কম্পিউটার সহ যাবতীয় কাজ বন্ধ হয়ে পড়ে। একই সাথে বড়ঘোপ বাজার, লামার বাজার, হাসপাতাল গেইট, কলেজ গেইট প্রভৃতি এলাকায় ব্যবসা উঠেছে লাটে।

অপর দিকে বায়ুবিদ্যুৎ প্রকল্পটিও আধা সচল। নাম মাত্র গ্রাহক সেখানের বিদ্যুৎ সুবিধা পায় বলে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিরা জানান। নেভাল ক্যাবলের মাধ্যমে জাতীয় গ্রিডলাইন থেকে কুতুবদিয়ায় বিদ্যুতায়নের বিষয়টি শোনা গেলেও এখনো তা ঝুলে আছে। বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্রে আরো একটি নতুন মেশিন আনা হচ্ছে এমন খবর চলছে দু‘বছর যাবত। সেই পুরনো মেশিন মেরামত বা জোড়াতালি দিয়েই খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে চলছে।

আবাসিক প্রকৌশলী আবুল হাসনাত জানান, পুরনো মেশিন, ওভাররোলিং হচ্ছে। মেশিনটি মেরামতে ঢাকা থেকে টেকনিশিয়ান আনা হয়েছে। পার্টস লেগেছে। বুধবার বিদ্যুৎ সরবরাহের কথা থাকলেও মেশিনটি খোলা থাকায় তা সম্ভব হয়নি। বৃহস্পতিবার (৫ সেপ্টেম্বর) বিদ্যুৎ সরবরাহ দেবেন বলে জানান।
তবে এদিনেও অজ্ঞাত কারণে বিদ্যুৎ পায়নি গ্রাহকরা। অন্ধকারে উপজেলা সদর। এমন বিদ্যুৎ ভোগান্তির মাঝে দ্রুত জাতীয় গ্রিডলাইনের বিদ্যুতায়নে কাজ করতে দ্বীপবাসি সরকারের প্রতি জোর দাবি জানিয়েছেন।

Print Friendly, PDF & Email
ঘটনাপ্রবাহ: কুতুবদিয়ায়, বিদ্যুৎ উৎপাদন বন্ধ
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

twenty − 13 =

আরও পড়ুন