৯ সাইক্লিস্টের পাহাড় জয়ের সংকল্প

fec-image

বান্দরবানের ওরা ৯ শিক্ষার্খী পাহাড় জয় করতে মাউন্টেন্ড বাইক এ্যাডভ্যাঞ্চার অভিযানে নাইক্ষ্যংছড়িতে এসে সমাপ্তি টানলো বুধবার (৯ ডিসেম্বর) দুপুরে। নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলা প্রশাসন স্বাগত জানালেন তাদেকে। এ অভিযানকে তারা নারী নির্যাতন বিরোধী পক্ষ পালনের অংশ হিসেবে নারীদের প্রতি উৎসর্গ করলেন উপজেলা পরিষদ চত্ত্বরেই।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান অধ্যাপক মো: শফিউল্লাহ ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাদিয়া আফরিন কচি। বেগম রোকেয়া দিবস উপলক্ষে আয়োজিত নারী নির্যাতন বিরোধী পক্ষ ও বেগম রোকেয়া পালন অনুষ্ঠানে আগত ক’ শত নারী। তারা সকলে এ আয়োজনে খুশি।

মুজিব শতবর্ষ উপলক্ষ্যে বান্দরবান জেলা পরিষদ এ এ্যাডভেঞ্চারের আয়োজন করেন জানালেন টিম লিডার শৈমং উ মার্মা । তিনি জানান, এটি ৩ পার্বত্য জেলায় প্রথম এ্যাডভেঞ্চার। এটি প্রথম শুরু করেন নভেম্বরে। আর দ্বিতীয়বারের মতো এ অভিযানে নামেন ৩ ডিসেম্বর সকালে। বান্দরবান জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কৈশাহ্লা মার্মা ও অন্যান্য কর্মকর্তারা তাদেরকে এ সময় স্বাগত জানান। এভাবে শুরু হয় অভিযান। প্রথমে যাত্রা শুরু হয় জেলার রুয়াংছড়ি উপজেলা হয়ে।

জেলা পরিষদ থেকে রুয়াংছড়ি। আর রুয়াংছড়ি হয়ে পর্যায়ক্রমে থানছি, রোয়াংছড়ি, রুমা, সদর, লামা, আলিকদম হয়ে সর্বশেষ তারা নাইক্ষ্যংছড়ি পৌঁছালেন ৯ ডিসেম্বর দুপুর ১ টায়। তিনি আরো বলেন, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া ৮ শিক্ষার্থী এ সাইক্লিস্ট আর তিনি টিম লিডার। তারা মুজিবর্বষের এ দিনের পাহাড় জয়ের স্বপ্ন নিয়ে পাহাড়ের পর পাহাড় ঘুরে বেড়িয়েছেন এ রকেট সাইকেল নিয়ে। যে সাইকেল ছাড়া অন্য সাইকেলে এ পাহাড়ের চুড়া যাত্রা অসম্ভব। আর তাদের এ অভিযানের মূল প্রতিপাদ্য বিষয় হলো মাদককে না আর নারী–শিশু নির্যাতন করবো না।

তিনি আরও বলেন, মাউন্ট রকেট নিয়ে করা এ অভিযানে আরো অংশ নেন, কাইছার, শূভ, প্রমিত, উসাংম্রই,আবদুল্লাহ এইম, নুনুমি ও জয়সেন। তারা সকলেই বান্দরবান পৌরসভা এলাকার বাসিন্দা।

বান্দরবান জেলা পরিষদের জনসংযোগ কর্মকর্তা জুড়ি মং বলেন, মূলত বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে এ স্বপ্ন দেখা। ওরা ৯ জনের এ অভিযান আগেও একবার হয়। তা ছিলো ৯ নভেম্বর। আর এটি দ্বিতীয় পর্যায়ের। আর সর্বশেষ যে অভিযান হবে আগামী ২৮ ডিসেম্বর থেকে ৩ দিন। এ এ্যাডভেঞ্চার শুরু হবে রাঙ্গামটির সাজেক থেকে। শেষ হবে থানচিতে। প্রায় আড়াইশত কিলো মিটার পথের এ যাত্রা। এ যাত্রার নাম বঙ্গবন্ধু ট্যুর দ্যা সিএইচটি এন্ড এমটিভি টেলেন্ট।

প্রতিক্রিয়া: অভিযানে অংশ নেয়া সাইক্লিস্ট মোহাম্মদ আবদুল্লাহ বলেন, তারা ৯ জন মানে নয় ভাই। পাহাড় জয়ের স্বপ্ন মানে পাহাড়ের মানুষের কল্যান চেয়ে কাজ করা। মাদক এবং নারী ও শিশু নির্যাতনের বিরোদ্ধে এ ক্যাম্পেইন। আর এতে সার্বিক সহযোগিতায় রযেছে-বান্দরবান অ্যাডভেঞ্চার স্পোর্টস ক্লাব। তারা এ অভিযানে দারুন খুশি।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

four × 3 =

আরও পড়ুন