“৪টি দেশীয় অস্ত্র, কার্তুজ রাইফেল ৪টি, দেশীয় অস্ত্রের কার্তুজ ২টি, আনসার পোশাক ৩ সেট, সামরিক বাহিনীর পোশাকের ন্যায় ২সেট, আনসার ক্যাপ ৪টি, ব্লেট ১ জোড়া, পিটি শো-১ জোড়া, ৩ জোড়া মুজা উদ্ধার করতে সক্ষম হন।”

উখিয়ার গহীণ অরণ্যে দেশীয় অস্ত্র, গোলা-বারুদসহ সামরিক বাহিনীর পোশাক উদ্ধার

fec-image

উখিয়া উপজেলার হলদিয়া পালং ইউনিয়নের উত্তর বড়বিল গহীণ অরণ্যে অভিযান চালিয়ে ৪টি দেশীয় অস্ত্র, গোলাবারুদ সহ বিপুল পরিমাণ সামরিক বাহিনীর পোশাক উদ্ধার করেছে উখিয়া থানা পুলিশ।।

শুক্রবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে এসব অস্ত্র ও সামগ্রী উদ্ধার করা হয় বলে জানান ওসি আবুল মনসুর।

জানা গেছে, উপজেলার দুর্গম এলাকা হলদিয়া ইউনিয়নের বড়বিল গ্রামটি অনেকটা সন্ত্রাসীদের আস্তানা হিসেবে খ্যাত। বিশেষ করে এলাকাটি পার্বত্য অঞ্চলের নিকটবর্তী হওয়ায় পাহাড়ি সন্ত্রাসীদের বিচরণ ছিল এই গ্রামে।

স্থানীয় এলাকাবাসির গোপন তথ্যের ভিত্তিতে উখিয়া থানার ওসি আবুল মনসুর, এসআই মুর্শেদ, এএসআই শামীম সহ একদল পুলিশ ঘটনাস্থল হলদিয়া উত্তর বড়বিল পাহাড়ি অঞ্চলের বাঁশঝাড়ের ভিতরে মাটিতে পুঁতে রাখা অবস্থায় ৪টি দেশীয় অস্ত্র, কার্তুজ রাইফেল ৪টি, দেশীয় অস্ত্রের কার্তুজ ২টি, আনসার পোশাক ৩ সেট, সামরিক বাহিনীর পোশাকের ন্যায় ২সেট, আনসার ক্যাপ ৪টি, ব্লেট ১ জোড়া, পিটি শো-১ জোড়া, ৩ জোড়া মুজা উদ্ধার করতে সক্ষম হন।

উখিয়া থানার ওসি আবুল মনসুর জানান, গোপন সংবাদের প্রেক্ষিতে ঘটনাস্থল থেকে ৪টি দেশীয় অস্ত্র, ৬টি কার্তুজসহ বেশ কিছু আনসার ও সামরিক বাহিনীর পোশাকের ন্যায় উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় পুলিশ সর্বোচ্ছ জোর দিয়ে সন্ত্রাসীদের আটকের চেষ্টা চালাচ্ছে। তবে এখনো পর্যন্ত ঘটনায় জড়িত কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে উত্তর বড়বিল এলাকার কয়েকজন প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, গত কয়েক মাস ধরে কিছু অপরিচিত লোকজন রাতের আঁধারে এই এলাকার পাহাড়ি জনপদে এবং পাশ্ববর্তী পার্বত্য অঞ্চলে যাওয়া-আসা করে আসছিল। হয়তো এসব অস্ত্র, গোলা বারুদ এবং পোশাক তাদের হতে পারে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

five × 2 =

আরও পড়ুন