প্রতিদিন টমেটো খেলে শরীরে যে ৫ পরির্বতন ঘটে

fec-image

শীতকালীন সবজির মধ্যে টমেটো খেতে সবাই পছন্দ করেন। মাছের ঝোল থেকে শুরু করে চাটনি, ভর্তা কিংবা সালাদ বিভিন্ন ভাবে খাওয়া যায় টমেটো। শুধু লাল পাকা টমেটোই নয়, কাঁচা টমেটোও খাওয়া যায় রান্না করে। খাবারের স্বাদ যেমন বাড়ায় সবজিটি, তেমনি স্বাস্থ্যের জন্যও বেশ উপকারী।

ত্বক ও চুলের স্বাস্থ্য রক্ষায় টমেটোর জুড়ি মেলা ভার। টমেটোতে রয়েছে ক্যানসার নাশ করার মতো উপাদান। ফুসফুস থেকে প্রস্টেট, যে কোনো ধরনের ক্যানসারের সঙ্গে লড়তেই কার্যকর টমেটো। স্তন ক্যানসারের ঝুঁকিও কমিয়ে দিতে পারে টমেটো।

এছাড়াও হাড় ভালো রাখতে এমনকি মেদ ঝরাতেও সাহায্য করে টমেটো। বিভিন্ন ভিটামিন এবং নানা ধরনের খনিজ পদার্থে ভরপুর। যা শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। তবে যারা প্রতিদিন পাতে টমেটো রাখছেন তাদের হতে পারে নানান শারীরিক সমস্যা। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, পরিমিত টমেটো না খেলে শরীরে নানা রোগের ঝুঁকি বাড়ে।

চলুন দেখে নেওয়া যাক প্রতিদিন টমেটো খেলে শরীরে কী কী সমস্যা হতে পারে-

* টমেটোতে হিস্টামিন নামের এক ধরনের উপাদান আছে। যা থেকে ত্বকে অ্যালার্জির সৃষ্টি করে। টমেটো অতিরিক্ত খেলে মুখ, জিহ্বা ও মুখের ফোলাভাব, হাঁচি, গলার জ্বালা ইত্যাদি মারাত্মক লক্ষণ দেখা দিতে পারে।

* টমেটোতে প্রচুর পরিমাণে ক্যালসিয়াম এবং অক্সালেট থাকে যা দেহে প্রচুর পরিমাণে উপস্থিত থাকে। এগুলো সহজে শরীর থেকে বিপাকযুক্ত বা নিষ্কাশিত হতে পারে না। এই উপাদানগুলো শরীরে জমা হতে শুরু করে, যার কারণে কিডনিতে একটি পাথর তৈরি হয়।

* এছাড়াও টমেটো বেশি গেলে গ্যাস্ট্রিকের সমস্যা বেড়ে যায়। টমেটোতে রয়েছে ম্যালিক ও সাইট্রিক অ্যাসিড আছে। যা পাকস্থলীতে অতিরিক্ত অ্যাসিড বা অম্লের প্রবাহ সৃষ্টি করে।

* যাদের পেটে আগে থেকেই সমস্যা রয়েছে। অর্থাৎ হজমের সমস্যা, তারা টমেটো বেশি খাবেন না। টমেটোতে সালমোনেলা নামের একধরনের ব্যাকটেরিয়া থাকতে পারে। এটি ডায়রিয়ার জন্য দায়ী।

* বেশি মাত্রায় টমেটো খেলে গেঁটে বাত দেখা দিতে পারে। কারণ এতে সোলানিন নামক বিশেষ অ্যালকালয়েড থাকে। এ যৌগ কোষে ক্যালসিয়াম তৈরির জন্য দায়ী। এ যৌগের পরিমাণ বেড়ে গেলে তা প্রদাহ তৈরি শুরু করে।

তবে টমেটো খাওয়া ক্ষতির চেয়ে উপকারের পাল্লাই বেশি ভারী। অবসাদ ও সর্দি মোকাবিলা করতে পারে টমেটো। এতে ভিটামিন সি আছে, যা রক্তচাপ কমায় এবং এতে থাকা পটাশিয়াম রক্তে জলীয় অংশ নিয়ন্ত্রণ করে। এতে প্রচুর অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট থাকায় রক্তপ্রবাহ বাড়ায়।

যাদের উপরোক্ত সমস্যাগুলো আগে থেকেই রয়েছে তারা প্রতিদিন টমেটো খাওয়া এড়িয়ে চলুন। একসঙ্গে অনেক না খেয়ে অল্প অল্প করে খেতে পারেন।

সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া/এনডিটিভি

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

5 + 18 =

আরও পড়ুন