মানিকছড়ি’র ‘তিনটহরী জিসি-গাড়ীটানা জিসি-পাক্কাটিলা’ সড়ক কার্পেটিং কাজ উদ্বোধন

fec-image

মানিকছড়ি উপজেলার অভ্যন্তরীণ যোগাযোগ ব্যবস্থার ২৮৩ কিলোমিটার পাকা ও আধাপাকা সড়ক নির্মাণ ও রক্ষাণা-বেক্ষণে দায়িত্ব পালন করছে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর( এলজিইডি)। উক্ত সড়কে দীর্ঘ সময় সংস্কার না থাকায় অনোপযোগী প্রায় ২৬ কি.মি. রাস্তার মধ্যে অবশেষে তিনটহরী জিসি-গাড়ীটানা জিসি ভায়া পাক্কাটিলার সাড়ে ৭ কি.মি. এর অধিক সড়কটি অবশেষে কার্পেটিং কাজ কাজ উদ্বোধন করা হয়েছে।

স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদপ্তর সম্প্রতি সড়কটির অনুকূলে প্রায় ১৪ কোটি ৮৬ লক্ষ টাকা টেন্ডার আহ্বান করেন। আর এই কাজটি সম্পাদনের দায়িত্বপ্রাপ্ত হন খাগড়াছড়ির বিশিষ্ট ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান মেসার্স সেলিম ব্রাদার্স। ৫ নভেম্বর বিকালে উক্ত প্রকল্প বাস্তবায়ন কাজ উদ্বোধন করেন উপজেলা চেয়ারম্যান মো. জয়নাল আবেদীন।

এ সময় স্থানীয় প্রকৌশল অধিদপ্তর এলজিইডি’র প্রকেীশলী মো. আবদুল খালেক, সহকারী প্রকৌশলী মো. সাইফুল ইসলাম, ঠিকাদার প্রতিনিধি মো. আবু সিদ্দীক, ইউপি চেযারম্যান মো. আবুল কালাম আজাদ, ইউপি সদস্য মো. আবদুল মোমিন উপস্থিত ছিলেন।

সরজমিনে দেখা গেছে, উপজেলার অভ্যন্তরীণ মোট সড়ক ব্যবস্থার মধ্যে ২৬.৫০ কিলোমিটার পাকা, ২৫৬.৪১ কিলোমিটার আধাপাকা সড়কের মধ্যে ‘তিনটহরী জিসি-গাড়ীটানা জিসি ভায়া পাক্কাটিলা’ সড়কটি ৭.৬৩ কি.মি, মানিকছড়ি-বাটনাতলী (ইউপি) সড়কটির ১২.৯১কি.মি, মানিকছড়ি-ছদুরখীল-কালাপানি সড়কে ৫কি.মি জুড়ে সৃষ্ট হয়েছে অসংখ্য খানাখন্দ! সড়কে কার্পেটিং এর লেশমাত্র নেই। এছাড়া সড়কের কালভার্টগুলো ভেঙ্গে চুরমার। যার কারণে চলতি বর্ষা মৌসুমে সড়কে জনচলাচল দায়! ফলে এসব অভ্যন্তরীণ উন্নয়নে উপজেলা প্রশাসন ক্ষতিগ্রস্ত সড়ক পূর্ণসংস্কারে প্রয়োজনী বরাদ্দ চেয়ে আবেদন করেন।

উপজেলা চেয়ারম্যান মো. জয়নাল আবেদীন বলেন, দীর্ঘ প্রতিক্ষার পর আজ এ অঞ্চলের কৃষিনির্ভর জনগোষ্ঠির দূর্ভোগ লাঘবে সড়কটি আধাপাকা থেকে পাকাকরণের উদ্বোধন করতে পেরে স্বস্তিবোধ করছি। উপজেলা অভ্যন্তরীণ অবশিষ্ট প্রায় ১৮ কিলোমিটার রাস্তা সংস্কারে বরাদ্দ পাইপ লাইনে রয়েছে।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

15 + five =

আরও পড়ুন