এমবাপেকে ছাড়া নেমে ভুরি ভুরি সুযোগ মিস ফ্রান্সের, গোলশূন্য ড্র

fec-image

কিলিয়ান এমবাপে নাকের আঘাতের কারণে এই ম্যাচে খেলতে পারেননি। তারকা ফরোয়ার্ডকে ছাড়া খেলতে নেমে ভুরি ভুরি সুযোগ মিস করলো ফ্রান্স।

লাইপজিগের রেড বুল এরেনায় শুক্রবার রাতে নেদারল্যান্ডসের সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করেছে ফরাসিরা। চলতি ইউরোতে এটিই প্রথম গোলশূন্য ড্র ম্যাচ।

ফ্রান্স ম্যাচে ১৫টি সুযোগ তৈরি করে একটি গোল করতে পারেননি। এর মধ্যে অধিনায়ক অ্যান্তোনিও গ্রিজম্যান মিস করেন দুটি বড় সুযোগ। ডাচরাও অবশ্য লড়াই করেছে। এমনকি একটি গোলও পেয়েছিল তারা। তবে ভিএআর দেখে সে গোল বাতিল করে দেন রেফারি।

ম্যাচের প্রথম মিনিটেই ফ্রিমপং এর শট হালকা আলতো ছোঁয়ায় বাইরে পাঠান মাইনান। ৪ মিনিটে গ্রিজম্যানের শট ভারব্রুগেন রুখে দেন। ১৪ মিনিটে আবারো গ্রিজম্যানের শট বাইরে দিয়ে চলে যায়।

১৭ মিনিটে গাকপোর শটকে দারুণভাবে রুখে দেন মাইনান। ২৮ মিনিটে আবারো গোলের সুযোগ পায় ফ্রান্স কিন্তু থুরামের শট লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়ে যায়। ৫৮ শতাংশ বল নিজেদের দখলে নিয়েও গোল পায়নি ফ্রান্স। ফলে গোলশূন্য থেকেই বিরতিতে যায় তারা।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরু থেকে গোলের জন্য মরিয়া হয়ে খেলতে থাকে সবাই। ৫৭ মিনিটে রাবিওর দূরপাল্লার শট চলে যায় লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়ে। ৬৫ মিনিটে গ্রিজম্যান আবারো শট নিলে রুখে দেন ডাচ গোলরক্ষক।

ম্যাচের সবচেয়ে উত্তেজনাপূর্ণ মুহূর্ত আসে ৭০ মিনিটে। জাভি সিমন্সের শট গোলে পরিণত হলে নেদারল্যান্ডস উল্লাস করা শুরু করে। পরে ভিএআরে দেখা যায় ডামফ্রিস অফসাইডে ছিলেন, সেজন্য গোলটি বাতিল করা হয়।

ম্যাচের শেষ দিকে ফ্রান্স বেশ কয়েকটি আক্রমণ করলেও সেগুলোতে গোল হওয়ার মতো রসদ ছিল না। যে কারণে দুই দলই এক পয়েন্ট নিয়ে সন্তুষ্ট থাকে। দুই দলই ৪ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় রাউন্ডে যাওয়ার লড়াইয়ে এগিয়ে রইলো।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন