নারী সদস্য সংগ্রহ করতেন কেএনএ নারী শাখার প্রধান সমন্বয়ক আকিম বম: র‍্যাব

fec-image

বান্দরবানে নতুন গজিয়ে ওঠা সশস্ত্র সংগঠন কুকি-চিন ন্যাশনাল আর্মি (কেএনএ) রোয়াংছড়ি ও সদর উপজেলার নারী শাখার অন্যতম প্রধান সমন্বয়ক আকিম বমকে (১৮) গ্রেফতার করেছে র‍্যাব। এছাড়াও কেএনফের সক্রিয় সদস্য হিসেবে লাল সিয়াম লম বমকে (৬০) গ্রেপ্তার করা হয়।

শুক্রবার (১৭ মে) ভোর ছয়টায় সদর উপজেলার পৃথক অভিযান চালিয়ে লাইমি পাড়া ও ফারুক পাড়ায় অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়।

বিকালে সাড়ে পাঁচটায় জেলা পরিষদ অডিটোরিয়ামে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা জানান কক্সবাজার র‍্যাব-১৫ অধিনায়ক লে. কর্ণেল এইচ এম সাজ্জাদ হোসেন।

গ্রেফতারকৃত আকিম বম (১৮) ও লাল সিয়াম লম বম (৬০) সদর উপজেলা লাইমি ও ফারুক পাড়া গ্রামের বাসিন্দা।

সংবাদ সম্মেলনে র‍্যাবের অধিনায়ক লে. কর্নেল এইচএম সাজ্জাদ হোসেন বলেন, ২০২৩ সালে কাল্লা রেসিডেন্সিয়াল মডেল স্কুলে পড়াকালীন মাইকেল নামে একটি ছেলে সাথে পরিচয় হয়ে প্রেমে জড়িয়ে পড়ে। মাইকেলে যুবকটি কেএনএ ট্রেনিংয়ে যেতে ও যোগ দিতে আকিম বমকে উৎসাহিত করে। ডিসেম্বর শুরুর দিকে রনিন পাড়া এলাকা হয়ে হেঁটে হেঁটে গহিন পাহাড়ের কেএনএ একটি প্রশিক্ষণ ক্যাম্পে পৌঁছায়। সেখানে কেএনএ নারী কমান্ডার ভান থার ময় বমের সঙ্গে পরিচয় হয়। আকিম বমসহ তাদের ব্যাচে ২০ জন ও অধিক নারী প্রশিক্ষণার্থী ছিল। তারা সবাই মুখে কালি মাখানো অনেকেই ছিল।

এইচএম সাজ্জাদ হোসেন আরও বলেন, কেএনএ নারী সদস্যরা ভোররাত তিনটার দিকে প্রশিক্ষণ শুরু করতো এর পাশাপাশি মার্শাল আর্ট গ্রহণ করতো। এই প্রশিক্ষণে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন ভান থার ময় বম। এই প্রশিক্ষণ থাকার মেয়েদের একদল ৫০ জন উত্তীর্ণ হয়। প্রশিক্ষণ ক্যাম্পে নারী ও পুরুষ মিলে ৬শত অধিক কেএনএ সদস্য রয়েছে।

অধিনায়ক এইচএম সাজ্জাদ হোসেন বলেন, আকিম বম মূলত কেএনএ সংগঠনের জন্য নারী সংগ্রহ করতেন। তিনি নারী সংগ্রহ করে কেএনএ সংগঠনের যোগ দিতে তাদেরকে উৎসাহিত করেন। তাই নারী সংগ্রহ করতে লাইমি পাড়াতে আসেন। এসময় গোপন সংবাদ পেয়ে অভিযান চালিয়ে লাইমি পাড়া থেকে কেএনএ নারী শাখার অন্যতম প্রধান সমন্বয়ক আকিম বমকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয় র‍্যাব। এছাড়াও পৃথক অভিযানে কেএনফের সক্রিয় সদস্য হিসেবে লাল সিয়াম লম বমকে (৬০) গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারদের কাছ থেকে জিজ্ঞাসাবাদে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পাওয়া গেছে এবং তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

সংবাদ সম্মেলনে র‌্যাব ১৫ এর স্কোয়াড্রন লিডার তৌহিদুল মুবিন খানসহ ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা ও গণমাধ্যম কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

Print Friendly, PDF & Email
Facebook Comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরও পড়ুন